আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও রোকসানা লেইসের কবিতা ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    রোকসানা লেইসের কবিতা

     রোকসানা  লেইসের কবিতা---

    আলৌকিক আশা
    নক্ষত্রের রাত ছিল, ছিল আগুনের আলো। কাঠ পুড়ানো ঘ্রাণ
    বহু দূর থেকে আসছিল ভেসে লৌকিকতার গান।
    আনন্দময় প্রাণ ছিল সুর ও তানে।
    গিটারের টুংটাং ও গুনগুন কণ্ঠে তোমার, স্বপ্ন ছিল স্বাধীনতার।
    বাতাসে হাতছানি ছিল সুদূর পরাবাস্তব
    উজ্জ্বল সহজীয়া আলৌকিক জীবন।
    আলেয়ার মতন ডাকছিল।
    অথচ চারপাশ অন্ধকার ভয়ংকর আতংক ছিল ঘিরে।
    জলপাই ট্যাংক বুটের শব্দ রক্তাক্ত শব।
     হিংস্র হাসি, ক্রোড়চোখ উন্মাদ উল্লাস।
    অন্ধকারে বারুদের ভালোবাসা ঘাসের বনে
    সময়গুলো দীর্ঘ ছিল ভয়ার্ত শংকা ছিল
    মূর্হুমূর্হ বাজছিল ড্রাম বিট,
    গ্রেনেড খই ফোটা গোলার শব্দ।
    জীবন মরণ সেতুর মাঝে একবুলেট দূরত্ব।
    মরীচিকার আশায় তবু মন হাসছিল,
    আমাদের মনে যুগিয়েছিল আশা।
     লাল সবুজ পতাকা অনেক ভালোবাসা।
    অন্ধকার রাত, তারার আলো, ঘাসের বনে বিজয় আনন্দ।
    সেই রাতে কি যেন, ছিল মন ছোঁয়া দূরন্ত  উচ্ছ্বাস
    নয়মাসে জন্ম হাওয়া শিশুর কান্না
    আমাদের মুখে হাসি, চোখ জলে ভাসছিল।

    শুধু ভালোবাসায়
    স্বপ্নগুলো রাত পেরিয়ে সময়ের চৌকাট মাড়িয়ে
    উড়ুক উড়ুক মেঘের ভেলায়
    আকাশ দেখব বলে বসেছিলাম; মেঘ ঢেকে আছে সব নীল।
    স্বপ্ন দেখব বলে, ঘুমিয়েছিলাম, শব্দ ঘুম ভাঙ্গিয়ে দিল।
    এই শোন, এখন আকাশের সময় নেই মেঘ নিয়ে খেলার
    ভালোবাসার সময় নেই হৃদয় খুলে দেখার,
    জল আর মেঘ মিলে একাকার হওয়ার।
    তবুও স্বপ্নগুলো অপেক্ষায় থাকে, চাতক চোখে।
    স্বপ্নের ডানা গুটিয়ে ধানশালিকের খুটে খাওয়া,
    ফড়িংয়ের উড়াউড়ি দেখে, অপেক্ষার প্রহর গুনে-
    প্রজাপতির বর্ণময় ঝিলিমিলি পাখায় উড়ে পাতায় পাতায়
    অন্তরের ছোঁয়ায় ছোঁয়ায়।
    রহস্যময় রূপালি সিম্ফনি ঘিরে থাকে প্রাণের আকুল ছন্দ।
    ভেবোনা, মহুয়া মাদল সুরের তাল ঠিক জাগবে ঢেউয়ের মাতনে,
    রোমে রোমে এক অনুভবে।
    অপেক্ষার প্রহর পেরিয়ে
    বেরিং সাগরের পাড় থেকে বয়ে যাবো 
    গ্লোসিয়ার বেয়ে যেদিক খুশি.......
    কবে হবে সময় ঝুল বারান্দায় জোছনা হয়ে গড়াগাড়ি খাওয়ার
    বেদনা আর শূন্যতার জানলাগুলো বন্ধ করে দেয়ার-
    একফালি চাঁদ খোলা আকাশের গায়ে হেলান দিয়ে থাকার।
    এসো হৃদয়ের কথা বলি সঙ্গোপনে
    তৃষিত চাতক হৃদয় গহীনে
    পূর্ণিমা জলছবি সাম্পনে ভাসি
    আলো ও আধাঁরের মধ্যিখানে
    আকুল চৈত্র খরা বরষনে ডুবি শুধু ভালোবাসায়।

     http://www.alokrekha.com

    3 comments:

    1. আমার বেশ লেগেছে

      ReplyDelete
    2. রোকসানা লেইসের কবিতা সব সময় অনন্য ! আলোকরেখায় ওনার কবিতা পড়ার সুযোগ পাই ..তাই অলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ ও কবির জন্য একরাশ শুভ্ৰচ্ছা

      ReplyDelete
    3. রোকসানা লেইস-এর কবিতা আমার বরাবরই প্রিয়!আজকের দুটা কবিতাই অত্যান্ত চমৎকার!আলোকবেখাকে অনেক ধন্যবাদ একসাথে কবিতা পড়ার সুযো্গ করে দেবার জন্য ! শুভেচ্ছা কবি! ভাল থাকবেন

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ