alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    আমাদের উপখ্যান ! - সুনিকেত চৌধূরী

    আমাদের উপখ্যান !

    - সুনিকেত চৌধূরী

    শৈবাল শঙ্কা সন্তপ্ত হৃদয়ে সমুদ্র সাঁতারে যেওনা

    যেওনা চাঁদের আলোয় অরক্ষিত হৃদয় যখন।

    আর যদি যাও তবে শক্ত করে ধোরো হাত

    মেলে দিও ভঙ্গুরতা যত

    হননের সমস্ত সম্ভাবনা মেনে নিয়ে !

    শুভাশীষকে চিঠি' (এপিসোড ৬)---------------------------------মুনা চৌধুরী



    শুভাশীষকে চিঠি' (এপিসোড ৬)/মুনা চৌধুরী


    নিলিশ্বরী,

    তোমার কথার সুরে এখনো সেই আগের মতো অভিমান! যেন ১৯ বছরে একেবারেই বড়ো হওনি তুমি। শুনে ভালো লাগলো কাজের সাথে দিনকয়েক ঘুরে আসবে। বেড়িয়ে এসো কলকাতা, আর আমিও নাহয় দেখবো তিলোত্তমাকে তোমার চোখে।
    দু’বাংলার ঘরছাড়া দেশছাড়া মানুষের কথা ভাবলে আমিও দুঃখী হয়ে যাই। কেন জানো, আমিও যে ওদেরই একজন। দাদা বর্ধমান থেকে দাঙ্গার বছর দুই পর এসেছিলেন আর তারপর থেকে বাংলাদেশে উনি স্থায়ী হয়েছিলেন। ১৯৪৬ এর কলকাতা দাঙ্গা/প্রত্যক্ষ সংগ্রাম দিবস অথবা ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের কথা যখন ভাবি, তখন কেন জানি সব হানাহানি, অন্যায়, অবিচার, জবাই, সম্ভ্রম পেরিয়ে আরেকদল সাধারণ মানুষের কথা মনে পড়ে যারা জাতি, ধর্ম, বর্ণ, মানচিত্র ভুলে গিয়ে সীমান্ত পেরুনো ঘরছাড়া, দেশছাড়া দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, ঠিক তোমার বাবার পুরোনো ঢাকার শরণার্থী শিবিরের গল্পটার মতো, আর মুক্তিযুদ্ধ? মা এর কাছে আমরা মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনতে শুনতে বড়ো হয়েছি। আমার জন্ম যদিও মুক্তিযুদ্ধের কয়েক বছর পর, তুবুও বড়ো ভাইবোনদের নিয়ে দীর্ঘ ৯ মাস কত অচেনা অনাত্মীয়ের বাড়িতে আমাদের পরিবার আশ্রয় নিয়েছিল। সেসব ইতিহাস ভুলে যাবার নয়।

    বিস্ময় বসন্ত -------- মেহরাব রহমান
















    বিস্ময় বসন্ত মেহরাব রহমান লোকালয় অচেনা কাহাদের বসবাস ঐখানে ? হেমন্ত চলে গেছে তবে যাত্রাপালা শেষ সমাপ্ত হোলি খেলা নগর বাসিন্দারা দ্রুতলয়ে মরা পাতা ঝাড় দেয় বিস্ময় বসন্ত ফিরেনা আর কারো কারো জীবনে খরতপ্ত দগ্ধ দুপুর বিষন্ন কোনো শীত সন্ধ্যায় উৎসব সংগীতের মধ্যগগনে প্রার্থনা

    আলোকরেখার পনের লক্ষ পাঠক !



    আমরা  সবাই  এটা জানি  যে  বহমান  স্রোত  বাধাপ্রাপ্ত  হলে  তা  কিছুক্ষন  থেমে  থাকলেও  পরবর্তীতে  ক্রমান্বয়ে  আরো  বেশী  শক্তি  সঞ্চয়  করে  আগের  চেয়ে   অনেক  বেশী  গতিতে  ধাবমান  হয়। 

     'আলোকরেখা 'র  সত্য -সুন্দরের  বহমান  স্রোতে  বাধা  পড়েছিল  সম্প্রতি।  .আপাত একটা  ছেদ  পড়েছিল  এর  প্রবাহে . কিন্তু  'আলোকরেখা 'র  প্রাণের  গভীরে  যারা  - যারা  এর  চালিকা  শক্তি  তারা  ওই  আপাত  বদ্ধতার  মাঝেই  আলোকরেখা'র   মনি -কাঞ্চন  আহরণ  করেছেন  সন্ধানী  ডুবুরীর  মতো।  আজ  যেইমাত্র   কৃত্রিম  বাঁধ  সরিয়ে  দেয়া  সম্ভব  হলো  তখন  প্রতিভাত  হলো  হাজারো  পাঠকের  পদচিহ্ন ! 

    আরো  এক  লক্ষ্য  বার  পাঠক  'আলোকরেখা 'য় এলেন  মাত্র  অল্প  কিছুদিনে ! 

    শুরুতে  যেমন , এই  পনেরো  লক্ষ্য  পাঠকধন্য  হওয়াকালেও   আমাদের  সমবেত  গান  - আমাদের  সম্মিলিত  হৃদয়ের  সিম্ফনি  : যা  সত্য , যা  সুন্দর , যা  মহৎ  - তা  অবিনশ্বর !



    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    শিশির ভেজা রাতে ----------- সানজিদা রুমি














    শিশির ভেজা রাতে 
    সানজিদা রুমি 

    এই শিশির ভেজা রাতে
    সদ্য বেদনা স্নাত আমার স্মৃতি
    ভেজা ভেজা চোখের পাতা
    ব্যাকুল মন অতৃপ্ত আত্মা।
    আমার ললাটে তোমার চোখের জল
    সবুজ ঘাসের মাঠে নীল আকাশের আঙিনায়
    খুঁজছো আমায় --- এক বিস্ময় !
    পৃথিবীতে নেই নেই জলে স্থলে
    নেই সমুদ্রের নোনা  জলে।
    আমায় পাবে  মানুষের অন্তরে
    লুকিয়ে আছি তোমার হৃদয় গহবরে।
    নক্ষত্রের চেয়ে আরো নিঃশব্দ আসনে
    চির কালের চেনা তোমার গহীন মনে।





    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    বৃষ্টি – তোমাকে দিলাম---------শ্রীকান্ত আচার্য








    "আমার সারাটা দিন মেঘলা আকাশ"
    আমার সারাটা দিন, মেঘলা আকাশ,
    বৃষ্টি – তোমাকে দিলাম
    শুধু শ্রাবণ সন্ধ্যাটুকু তোমার কাছে চেয়ে নিলাম।

    হৃদয়ের জানালায় চোখ মেলে রাখি
    বাতাসের বাঁশিতে কান পেতে থাকি
    তাকেই কাছে ডেকে, মনের আঙিনা থেকে
    বৃষ্টি তোমাকে তবু ফিরিয়ে দিলাম।

    তোমার হাতেই হোক রাত্রি রচনা
    এ আমার স্বপ্ন সুখের ভাবনা
    চেয়েছি পেতে যাকে, চাইনা হারাতে তাকে
    বৃষ্টি তোমাকে তাই ফিরে চাইলাম।




    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    প্রথমেই অনিচ্ছাকৃত অসুবিধার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। হঠাৎ করেই আলোকরেখায় হ্যকিং ও ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিয়েছিল

    প্রথমেই অনিচ্ছাকৃত অসুবিধার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। হঠাৎ করেই আলোকরেখায় হ্যকিং ও  ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিয়েছিল। জানি না কে বা কাহারা এই দুষ্ট ও ঘৃণিত কাজ করেছিল। সব কিছু এলোমেলো হয়ে গেছিল এমন কি আমি আলোকরেখায় লগ ইন করতে পারছিলাম না। কিন্তু আপনাদের ভালোবাসা ও শুভ কামনায় প্রায়  সব ঠিক করতে পেরেছি।দুই একদিনের মধ্যেই নিয়মিত প্রকাশনা ও কার্যক্রম শুরু হবে।   
    আগেও আলোকরেখা হ্যাক হয়েছে। ভাইরাসের অনুপ্রবেশ ঘটানো হয়েছে। তবুও আলোকরেখাকে অবদমিত করতে পারেনি। আলোকরেখার যাত্রা পথ যতই বন্ধুর হোক না কেন আমি দৃঢ় বিশ্বাস যাই হোক না কেন যত আপনারা আলোকরেখার সাথে থাকবেন। আপনারা যে আলোকরেখাকে এত ভালোবাসেন এটাই আলোকরেখার পাথেয়। নতুন কিছু প্রকাশিত না হওয়াতেও আপনারা পুরোনো পোস্টগুলো খুঁজে খুঁজে পড়েছেন। এটা আলোকরেখার জন্য অনেক বড় পাওয়া।  অনেক ভালোবাসা ও শুভ কামনা।



    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    ভালোবাসা--------- সঞ্জয় দাস














    ভালোবাসা-
    সঞ্জয় দাস

    ভালোবাসা-
    গায় সাম্যের গান
    সুর মাধুর্য ভাঙে শৃঙ্খল।
    ভালোবাসা-
    ভাসে মুক্ত ভেলায়
    পালতোলা নাওয়ে উজান বেলায়।
    ভালোবাসার-
    নাই কূল প্রান্তর-
    নাই তল, নাই সমতল।

    শুভ জন্মদিন! - আশরাফ আলী



    শুভ জন্মদিন!
    আশরাফ আলী 

    ঘড়ির কাঁটা রাত্রির মধ্যযাম ছাড়িয়ে 
    পেরিয়েছে কিছুটা সময় 
    টেলিফোনে "Unknown" কল জানান দেয়
     আজ আমার জন্মদিন!
    অনেক দূরের একান্ত কাছের কণ্ঠে "Happy Birthday to You!"
    স্মরণে আনে জীবনের পথে কে রেখেছে মনে 
    একসাথে হাঁটামেঠোপথ 
    কে জানে আমার "ভালোলাগা" 
    গভীরতা আর আমার "being there"!
    আর অন্য যেকোন একটা দিনের মত 
    একটা দিন বৈতো নয় 
    তবু কেন দূরাগত একটা বাক্য দিনটাকে করে দেয়
    সত্যিকারের Happy Birthday! 

     http://www.alokrekha.com

    কবিতাশিল্প ভিনসেন্ট হুইডব্রো (ল্যাটিন আমেরিকান কবি) বাংলা অনুবাদ: মেহরাব রহমান














     কবিতাশিল্প 
    ভিনসেন্ট হুইডব্রো (ল্যাটিন আমেরিকান কবি)
    বাংলা অনুবাদ: মেহরাব রহমান 

    কবিতাকে হতে দাও চাবির মতন
    যে খুলে দেবে হাজার দুয়ার সমুখে l
    একটি পাতা ঝরে :
    কিছু যেন উড়ে যায় মাথার উপর দিয়ে ;
    চোখের দৃষ্টিকে আকণ্ঠ পান করতে দাও
    এই সৃজন সৃষ্টি
    এবং কাঁপতে দাও শ্রোতার অন্তরাত্মা l

    তুমি। সানজিদা রুমি --ভোরের আলো হয়ে তুমি এলে আমাদের কোলে। যেদিন জানলাম "মেয়ে” হয়ে জন্মাবে তুমি প্রার্থনা করেছি ঈশ্বরের কাছে আমার মত জোনাকির-প্রাণ ক্ষণের নিভে আর জ্বলে।














    তুমি।
    সানজিদা রুমি
    ভোরের আলো হয়ে তুমি এলে
    আমাদের কোলে।
    যেদিন জানলাম "মেয়েহয়ে জন্মাবে তুমি
    প্রার্থনা  করেছি ঈশ্বরের কাছে
    আমার মত জোনাকির-প্রাণ ক্ষণের নিভে আর জ্বলে।
    ছোটে দিশেহারা আকুল চঞ্চল
    কাঁদতে জানে শুধু ভেজায় অঞ্চল।
    সে রকমটা হবে নাকো তুমি --
    তুমি হবে স্রোতস্বিনী ,সূর্যের প্রখর জ্যোতি
    অতৃপ্ত বেদনায় বিভীষিকায় উদাসী নও
    হবে দুর্বার দুরন্ত গতি।
    আর জেনো --
    আমার সকল গান সকল কবিতা তোমার জন্য।
    রাতের শিশির হবে তোমায় ভালোবাসায় সিঞ্চিত করতে
    আকাশে মেঘ হব তোমায় ছায়া দিতে।
    শ্রাবনের বৃষ্টি হব
     অঝোর ধারায়-
    মুছে দিতে গ্লানি জরাজীর্ণ যত।
    এই জীবনে যা কিছু পেয়েছে আমি

    সব থেকে বড় পাওয়া তুমি।

    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    বিষাদ বিনাশী ওম ! - আশরাফ আলী।
















    বিষাদ বিনাশী ওম !
    - আশরাফ আলী।

    সুদূর সমুদ্রের তট কিংবা বেলাভূমি
    তোমার পদচিহ্ন স্থায়ী বালুরাশির স্মৃতিতে।

    আজকের অপরাহ্নের আবহাওয়া বার্তার ঝড়ের আভাসে
    উদ্বেলিত হৃদয় আমার সেই স্মৃতিতে মুখগোঁজে
    খোঁজে তোমার হৃদয় উৎসারিত
    বিষাদ বিনাশী ওম !
     http://www.alokrekha.com

    পাঠকদের বিশেষ অনুরধে "দৃষ্টিকোণ "পুরো চলচ্চিত্র প্রকাশ করা হল

    পাঠকদের বিশেষ অনুরধে "দৃষ্টিকোণ "পুরো চলচ্চিত্র প্রকাশ করা হল 

    দৃষ্টিকোণ হলো ২০১৮ সালে নির্মিত কৌশিক গাঙ্গুলির পরিচালনায় একটি বাংলা চলচ্চিত্র। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তগল্পে দেখা যায় জীবন মিত্র (প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী) তার স্ত্রী রুমকি (চুর্ণী গাঙ্গুলী) কে নিয়ে সহজ সরল জীবনযাপন করেন তারা একটি খুনের মামলায় জড়িয়ে পড়ে। এই খুনটি ছিল শ্রিমতীর (ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত) স্বামী (পলাশ সেন) যে রুমকির বড় ভাই প্রীতম (কৌশিক গাঙ্গুলী) এর দ্বারা দূর্ঘটনা ক্রমে খুন হয়। এতে সে অনুতপ্ত বোধ করে কিন্তু খুনের দায় নিতে চায় না। পরে জীবন মিত্রের দ্বারা আসল রহস্য উন্মোচিত হয়।.





    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    স্বপ্নের সমীকরণ / মুনা চৌধুরী















    স্বপ্নের সমীকরণ / মুনা চৌধুরী


    জীবন কুরুক্ষেত্রের শেষে সীতার মৃত্যু হয়নি
    ধরিত্রী চৌচির হয়ে গিয়েছিলো শুধু

    দেবীমা' এসব বললেন আমায়:
    তিনি এলেন, দেখলেন, আশীর্বাদ করলেন
    ধরলেন তার রনংদেহী রূপ....
    যা দেবী সর্বভূতেষু বিষ্ণুমায়েতি শবদিতা
    নমস্তসৈ নমস্তসৈ নমস্তসৈ নমো নমঃ
    যা দেবী সর্বভূতেষু চেতনেত্য ভিধীয়তে  
                                    নমস্তসৈ নমস্তসৈ নমস্তসৈ নমো নমঃ

    বিষণ্ণ বিকেল! ------ সুনিকেত চৌধুরী

     বিষণ্ণ বিকেল!
    - সুনিকেত চৌধুরী

    বিষন্নতার বিচরণ তো ছিলো
    আমার আংগিনা জুড়ে সেই কতকাল
    তোমার তো ছিলো বৈশাখ, ছিল ফাগুন
    আর ছিলো এক আকাশ কবিতা !
    উদ্দীপ্ত আকাঙ্খা ছিলো, রৌদ্র ছিলো
    ওভার ব্রীজের ওপাড় ছিলো
    উন্মুক্ত পার্ক দেখা যায় ব্যালকনি ছিলো !