আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায় --- সানজিদা রুমি ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায় --- সানজিদা রুমি





















    বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায়

    সানজিদা রুমি 

    নীরব নিশ্চল অশ্রুত
    পুজারি আমি-
    নিষ্ঠ আরাধনে অনুরক্ত।
    জগতের যত যুক্তি তর্ক দিয়ে বিসর্জন
    জেনেছি ধ্যানমগ্ন হৃদয়ে তোমার দর্শন।
    আপনার মাঝে খুঁজেছি তোমারে একান্ত  বিশ্বাসে
    তোমারি নাম জপেছি সদাই নিঃশ্বাসে  প্রশ্বাসে।
    হঠাৎ আদেশ !
    ফিরে এস! সেখানেই যেখান থেকে যাত্রা শুরু 
    যেন সহসা স্তিমিত জলে
    নিপাত প্রলয়ে-
    বক্ষে বিঁধিল বাণ 
    বিচলিত হয়ে উঠে মন।





















    “ওগো অন্তর্যামী,কী রোষবশে
    এই অসময়ে-
    করলে পরয়ানা জারি,
    চলে এসো বললেই কি চলে আসতে পারি ?
    অতি মূর্খ পুজারি  আমি,
    জননীর অন্তরের কথা
    বোঝো না কি তুমি?
    কত শত দায়ভার
    বৃক্ষ শাখার।
    আষ্ঠেপৃষ্ঠে বাঁধা সংসারের স্পন্দন
    পাকে পাকে জড়ানো মায়ার বন্ধন।
    চাইলেই কি সহসা যায় ছেঁড়া পাল?
    কত পথ হেঁটেছি এতটা কাল।
    চলতে চলতে হারিয়েছি পথ
    বিস্মৃত যাত্রারম্ভের সূত্রপাত।
    এই বিকিকিনির হাটে-
    নানা পসারের উন্মত্ততায়
    মত্ত ছিলাম বাজীকরের খেলায়
    হেরেছি জিতেছি ,
    কখনও আবার জিতেও হেরেছি।
    জীবন ব্যবসায় পূর্ণ লাভের খাতা,
    অপূর্ণ! পারের যাবতীয় পাতা।





















    নিঃস্ব আমি-
    কোথা পাব ফেরার সম্বল?
    দয়া কর! এই নির্বোধ পুজারিরে
    ভৃত্যের আবেদন-
    বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায়
    নইলে বিফলে যাবে অন্ত:সার হবে
    সকল বৃক্ষশাখা
    নির্জীব নিষ্প্রাণ অচেতন।

    টোরন্টো, নর্থ ইয়র্ক
    ২৮ শে মে ২০১০



    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    6 comments:

    1. তমা কর্মকারJuly 22, 2017 at 7:27 PM

      সানজিদা রুমীর লেখা আমার সব সময় অনেক প্রিয়। বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায় --- সানজিদা রুমি্র কবিতা আমাকে কাঁদিয়েছে। ওনার সব লেখা সত্য জীবনের কাছাকাছি। বিমূর্ত নয়। তাই তা এতো জনপ্রিয়। অনেক ভালোবাসা!

      ReplyDelete
    2. স্বাগতিকা রোজJuly 22, 2017 at 7:46 PM

      আমারও সানজিদা রুমীর লেখা অনেক প্রিয়। ওনার প্রাপ্ত "সংসার সমুদ্র" কবিতার বইয়ের প্রতিটা কবিতা অনেক হৃদয়গাহী। এই বইটা মনে হয় সঠিক নাও হতে পারে শেরেবাংলা স্বর্ণ পদক পেয়েছিল। আমার এই বইটি পড়ার সৌভাগ্য হয়েছিল--- "এক কথায় দারুন! জীবনের কথা -ভাষা বা শব্দের খেলা নয় জীবনের প্রতিচ্ছবি " !সানজিদা রুমি্র --বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায়০তার জীবনের সাথে যুক্ত কবিতাটাও অনবদ্য ও অসাধারণ!

      ReplyDelete
    3. মিথিলা আদিবJuly 22, 2017 at 9:25 PM

      সানজিদা রুমির- বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায় অসাধারন কবিতা। চলে এসো” বললেই কি চলে আসতে পারি ? দারুন রুঢ় কথা !।সানজিদা রুমিকে শুভ কামনা ও প্রার্থনা।

      ReplyDelete
    4. শায়ম রহমানJuly 22, 2017 at 10:18 PM

      সানজিদা রুমীর লেখা আমার সব সময় অনেক প্রিয়।সানজিদা রুমির- বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায় সহজ ভাব ও ভাষায় কবিতা অসাধারন লেখা- সানজিদা রুমিকে অভিনন্দন .

      ReplyDelete
    5. জাহানারা বেগমJuly 22, 2017 at 10:30 PM

      এত শক্তিশালী আর সঠিক শব্দ চয়ন।দারুন!সানজিদা রুমির- বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায়-এটা শুধু কবিতা না এক সম্পূর্ণ কথপোথন ঈশ্বরের সাথে।

      ReplyDelete
    6. সানজিদা রুমির- বাড়তি কিছু সময় দাও এই যাত্রায়- লেখাটা পরে আমি চোখের জল ধরে রাখতে পারিনি-তোমার না জানি কত কষ্ট হয়েছে লিখতে। অনেক অনেক ভালো লিখেছো।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ