আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও তুমি বেরিয়ে পড়ো ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    তুমি বেরিয়ে পড়ো














    তুমি বেরিয়ে পড়ো
    সানজিদা রুমি 

    তুমি বেরিয়ে পড়ো আপনার  খোঁজে
    আর নয় আমগ্ন হতাশায় নিমগ্ন-নিলীন
    তুমি নিরন্তর সম্মুখযাত্রী -
    করো নিজ অস্তিত্বের অন্বেষণ।
    জীবনসত্য তোমার  দ্রুতি 
    কালচক্র জীবনের গতি।
     সময় তোমার অপেক্ষায়
    সেও ধৃত হবে সীমার চূড়ায়।
    তোমার চারপাশে শৃঙ্খল
    হিজাব তোমার নয় আবরণ
    আভরণও নয় কোনমতে
    তোমার অস্তিত্বের বেড়ি
    নিগ্রহ, প্রতিবন্ধ উৎপীড়ন।
    তুমি  মৃন্ময়, তুমি  চিন্ময়,
    অজর অমর  অব্যয়।
    বিশ্বের  চির-দুর্জয় তুমি
    মানব দানব দেবতার ভয় "
    অদম্য অক্লান্ত সম্পূর্ণ নারী!
    নও পাত্র কৃপা-অনুকম্পার,
    তোমায় বেঁধে রাখে -
    সাধ্যি নেই কোন পুরুষ বিধাতার।
    তুমি  ঈশান-কোনের রুদ্র ঝঁঝা
    তেজনস্বিনী মহাকাল -
    সেই  আগুনে  গলাও তোমার গায়ের বেড়ি
    বানাও তাকেই  সশস্ত্র  হাতিয়ার।
    তোমার শরীর মন
    পবিত্রতার মূর্ত স্বরূপ
    তুমি ধারণ করো মূল সত্য
    ধর্ষক  পারে  না করতে তোমায়
    অশুচি, নোংরা, কলুষিত।
    গ্লানিহীন তোমার সত্তা
    ছুঁতে পারে না  কোন  কুশ্রী  বীভৎসতা।
    সাক্ষী সাবুদ প্রমাণপত্র সবই 
    তোমাতেই অভীষ্ট
    তোমারই পরীক্ষা নেয়  কৃমিকীট
    ঘৃণিত হীন পাপিষ্ঠ।
    ভয় নেই তোমার এগিয়ে চলো
    প্রদীপ নয় দিকদর্শী মশাল জ্বালো।
    তোমার হৃদয়ে রোজ সূর্যোদয়
    সত্যের কল্যাণের
    তাতে ভস্ম হবে ক্রূরমতি কামনা
    তোমারই হবে জয়।
    ওড়না  তোমার বিজয়ধ্বজা  তোমার মানচিত্র
    কোন কামাসক্ত হাত স্পর্শ করুক ওকে
    ভূকম্পন হবে ভস্মিত অগ্নিবানে
     সেই  ধর্ষিত হবে -
    তুমি এগিয়ে চল নির্ভিক পদচারণে।


    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    17 comments:

    1. অহনা রহমানApril 12, 2018 at 6:39 PM

      দারুন লেখা। বর্তমান নারী ধর্ষণের প্রেক্ষাপটে উপযুক্ত লেখা। নারীর সাহস ও আত্মবিশ্বাস নিয়ে আজ তাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। চমৎকার শব্দ চয়নে উৎকৃষ্ট কবিতা।

      ReplyDelete
    2. অনিমেষ হীরাApril 12, 2018 at 7:13 PM

      দারুন সাহসি কবিতা।সানজিদা রুমির লেখা সবসময় বলিষ্ট। নারীর সাহস ও আত্মবিশ্বাস নিয়ে তাদের এগিয়ে যেতে হবে। নয় আমগ্ন হতাশায় । দুর্জয় আমার অক্ষয় হিসাবে যত বাধাই আসুক না কেন। অপূর্ব, শব্দ চয়নে উৎকৃষ্ট বক্তব্য। চমৎকার কবিতা। অনেক ভালোবাসা।

      ReplyDelete
    3. ঋতু মীরApril 12, 2018 at 8:07 PM

      ওড়না তোমার বিজয়ধ্বজা তোমার মানচিত্র
      কোন কামাসক্ত হাত স্পর্শ করুক ওকে
      ভূকম্পন হবে ভস্মিত অগ্নিবানে
      সেই ধর্ষিত হবে
      তুমি এগিয়ে চল নির্ভিক পদচারণে-- অসাধারণ এই অভিব্যাক্তি! নারী নির্যাতন, ধর্ষণের প্রেক্ষাপটে সাবলীল এবং সময়োপযোগী এই কবিতার ভাব, শব্দ এবং ছন্দের ব্যাবহার। প্রতিনিয়ত ধর্ষণের ঘটনার খবরে হতাশা আর ঘৃণায় ডুবে যাওয়া বিখুদ্ধ মন সাহসী আশ্বাস পায় প্রতিবাদের এক বলিষ্ঠ উচ্চারণে । ধন্যবাদ সানজিদা রুমি!

      ReplyDelete
    4. কেরামত মাওলাApril 12, 2018 at 8:19 PM

      "ছুঁতে পারে না কোন কুশ্রী বীভৎসতা।সাক্ষী সাবুদ প্রমাণপত্র সবই অভীষ্ট তোমারই পরীক্ষা নেয় কৃমিকীট ঘৃণিত হীন পাপিষ্ঠ।" নিষ্ঠর অথচ কঠিন সত্য। নারী ধর্ষিত হয় আবার তাকেই দিতে হয় পরীক্ষা। জোগাড় করতে হয় তাকেই সাক্ষী সবুদ।সানজিদা রুমির তুমি বেরিয়ে পড়ো অতীব বাস্তব ও কঠিন লেখা। অনেক ভালোবাসা কবি ও লেখক সানজিদা রুমি।

      ReplyDelete
    5. চমৎকার প্রতিবাদী কবিতা

      ReplyDelete
    6. সুভাষ দত্তApril 14, 2018 at 7:01 PM

      আলোকরেখাকে নব বর্ষের অনেক শুভেচ্ছা

      ReplyDelete
    7. চিত্ত চৌধুরীApril 14, 2018 at 7:15 PM

      বেরিয়ে পর , চমত্কার বিপ্লবী কবিতা , কবিকে ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    8. মেহতাব রহমানApril 20, 2018 at 2:57 PM

      দারুন লেখা ! আজকের প্রেক্ষাপটে এই অতিব প্রযোজ্য লেখা ।কিন্তু বহুদিন কন নতুন লেখা পাইনা।অপেক্ষায় রইলাম

      ReplyDelete
    9. আফরোজা আক্তারApril 20, 2018 at 5:28 PM

      "তুমি বেরিয়ে পড়ো" অনেক দিনতুমি পরে এমন সুন্দর একটা লেখা পড়লাম

      ReplyDelete
    10. জিয়বুন্নেসা করিমApril 20, 2018 at 5:39 PM

      "তুমি বেরিয়ে পড়ো" অনেক সুন্দর লেখা , এমন করেই একদিন আসবে সত্তিকার নারী মুক্তি

      ReplyDelete
    11. শাম্মি আক্তারApril 20, 2018 at 5:46 PM

      পুরো সমাজটাকে নাড়া দেয়ার মতো এক প্রতিবাদী , বিপ্লবী কবিতা। কবিকে অনেক অভিনন্দন আর শুভেচ্ছা

      ReplyDelete
    12. শিমুল বিল্লাহApril 20, 2018 at 5:57 PM

      ওড়না তোমার বিজয়ধ্বজা তোমার মানচিত্র
      কোন কামাসক্ত হাত স্পর্শ করুক ওকে
      ভূকম্পন হবে ভস্মিত অগ্নিবানে
      সেই ধর্ষিত হবে -
      তুমি এগিয়ে চল নির্ভিক পদচারণে। কি সুন্দর কথা। সানজিদা রুমিকে অনেক সাধুবাদ আর শুভেচ্ছা

      ReplyDelete
    13. জোসনা কবিরApril 20, 2018 at 6:05 PM

      "তুমি বেরিয়ে পড়ো আপনার খোঁজে
      আর নয় আমগ্ন হতাশায় নিমগ্ন-নিলীন
      তুমি নিরন্তর সম্মুখযাত্রী" পৃথিবীর সকল নারীরা একযোগে এ কথা চিত্কার করে বলা উচিত।
      সানজিদা রুমিকে প্রাণ ঢালা শুভেচ্ছা

      ReplyDelete
    14. দিলারা হাশেমApril 21, 2018 at 3:28 PM

      মওলানা আবু সুফিয়ানীর মন্তব্বো পড়লাম। ইচ্ছামতন ফতোয়াবাজির আর একটা উদাহরণ দেখলাম। এই ধরণের লোকেরাই মৌলবাদ আর মৌলবাদী সন্ত্রাসকে জন্ম দেয়।

      ReplyDelete
    15. ফজলুল করিমApril 21, 2018 at 3:35 PM

      কোন লেখা হারাম বা হালাল সেটা বিচারের অধিকার এই মওলানাকে কে দিয়েছে

      ReplyDelete
    16. মহাবিশ্বApril 22, 2018 at 8:04 PM

      সানজিদা রুমি ধর্ম মানে না বলে দাবী করে আবার হিজাবের বিরুদ্ধে লেখা ।এসব লেখা থেকে বিরত থাকুন ।

      ReplyDelete
    17. আশরাফুল হকMay 6, 2018 at 6:02 PM

      "তুমি বেরিয়ে পড়ো " দারুন অনবদ্য লেখা বরাবরের মতই! অপূর্ব ভাব ! অনন্য উপমা! শব্দের মুক্তা মালা!আবাহন মনের কথা যা আমারা ভাবি প্রায়শ কিন্তু বলার বা লেখার ক্ষমতা নেই। সানজিদা রুমিকে অনেক ধন্নবাদ

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ