আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও অচেনা চেনা --সানজিদা রুমি ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    অচেনা চেনা --সানজিদা রুমি

       










    অচেনা চেনা
    --সানজিদা রুমি

    তুমিও চোনো না আমায়, আমিও চিনি না তোমায়
    ঘুমের গহীনে রাতের তিমিরে ঘন নীলিমায় -
    তবুও পরস্পরের  অনেক কাছাকাছি আসি
    দুজনের মন দূর নীহারিকা-
    চাঁদের আলোয় অনেক খোঁজাখুঁজি করে খুঁজতে থাকি নিজেকে
    অভিমান এসে ভিড় করে আমার নয়নে
    সজল কাজল চোখের তারায় শিথিল শয়ানে।
    হাজার রাতের স্বপ্নে জড়ানো অনাগত কাল
    হাজার দিনের সুচিরকাম্য সোনালি সকাল।
    রাত কেটে যায় সেই অদেখা স্বপ্নের আলোকে-
    তুমি এসব বোঝো না, অচেনা মনে হয় আমাকে।
    রক্তিম চোখে দেখার চেষ্টা কর আমার অন্তর ভেতর
    অভিমান ভরা সজল নয়ন যেন মরুভুমির কর্কশ পাথর।
    ভালবাসার স্বপ্ন জোড়ান স্বপ্নকে ভাবো ছেলেমানুষি—
    আসলে তুমি চাও , যেভাবে আমি চাই সেভাবে গড়া হব না
    শুধু তোমার ছাঁচে গড়ে উঠবো আমি
    আমার ব্যক্তিত্বকে ব্যক্তি হিসেবেই দেখতে চাও
    অথচ তুমি ভাল করেই জানো-
    আমার এই যে স্বত্বা সে তোমার পৃথিবীর-
    তোমার স্বপ্ন দিয়ে বেঁধেছি নতুন বাসর

    বদলে ফেলেছি নাম ও ঠিকানা।

    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    6 comments:

    1. কবিতা রায়August 24, 2018 at 9:01 PM

      বাস্তব জীবনের প্রতিফলন দেখতে পাই এই কবিতায়। আমরা কত কাছে থাকি একজন অন্যজনের তবুও কত অচেনা যদিও ভাবি সে আমার কত চেনা। এখানে কবির নামকরণের সার্থকতা। অনেক ভালো লাল লাগলো সানজিদা রুমি আপনার অচেনা চেনা কবিতা। সাথে অনেক অনেক ভালোবাসা ও শুভেচ্ছে।

      ReplyDelete
    2. সমীরণ চ্যাটার্জিAugust 24, 2018 at 9:23 PM

      "তুমিও চোনো আমায় আমিও চিনি না তোমায় ঘুমের গহীনে রাতের তিমিরে ঘন নীলিমায় -
      তবুও পরস্পরের অনেক কাছাকাছি আসি দুজনের মন দূর নীহারিকা-" শব্দ মালায় গেঁথেছেন জীবনের সব থেকে চরম সত্য। অনবদ্য জীবন বোধের একটি কবিতা। কষ্টের কতগুলো পড়তে পড়তে ভালোলাগার গন্ডি পেরিয়ে কখন জানি ভালোবেসে ফেলেছি সানজিদা রুমির কবিতা খানি।

      ReplyDelete
    3. মেহতাব রহমানAugust 24, 2018 at 11:55 PM

      এত ভালো লাগলো সানজিদা রুমির "অচেনা চেনা " পড়ে। আজ আমি কবিতার গুনাগুন বিচারে যাবো না। শুধু মনে হয়েছে কবিতাখানি সত্যের স্বরূপ। বিশেষ করে এই লেখা গুলির মাঝে লুকিয়ে আছে আমরা পরস্পরকে কতটা চিনি। "চাঁদের আলোয় অনেক খোঁজাখুঁজি করে খুঁজতে থাকি নিজেকেঅভিমান এসে ভিড় করে আমার নয়নেসজল কাজল চোখের তারায় শিথিল শয়ানে।হাজার রাতের স্বপ্নে জড়ানো অনাগত কালহাজার দিনের সুচিরকাম্য সোনালি সকাল।রাত কেটে যায় সেই অদেখা স্বপ্নের আলোকে-তুমি এসব বোঝো না, অচেনা মনে হয় আমাকে।" অনেক ভালোবাসা আর প্রার্থনা তোমার জন্য।

      ReplyDelete
    4. মহুয়া রায়August 25, 2018 at 1:19 AM

      সানজিদা রুমির "অচেনা চেনা " পড়ে এত ভালো লাগলো।কখন যে আবেগে চোখের জল ঝরে এলো বুঝতে পারি নাই. এত মর্মস্পর্শী লেখা। আসলে তুমি চাও , যেভাবে আমি চাই সেভাবে গড়া হব নাশুধু তোমার ছাঁচে গড়ে উঠবো আমিআমার ব্যক্তিত্বকে ব্যক্তি হিসেবেই দেখতে চাও অথচ তুমি ভাল করেই জানো-আমার এই যে স্বত্বা সে তোমার পৃথিবীর-
      তোমার স্বপ্ন দিয়ে বেঁধেছি নতুন বাসর বদলে ফেলেছি নাম ও ঠিকানা।সোলেও কি আমাদের এই বাস্তবতা নয়?

      ReplyDelete
    5. সিহাব সরকারAugust 25, 2018 at 1:25 AM

      জীবনের এমন গভীর ভাবনা, প্রতিফলন ও তার অভিব্যক্তির প্রকাশ।যেমন বিষয় বস্তু, তেমনি চমৎকার ভাষাভাব অপূর্ব ও শব্দচয়ন ও রচনা শৈলী মিলিয়ে অনবদ্য ও অনিন্দ্য এক কবিতা। বড্ডো ভালো। অনেক ভালোবাসা কবি।

      ReplyDelete
    6. তপতী আহমেদAugust 25, 2018 at 4:43 PM

      সানজিদা রুমির "অচেনা চেনা " পড়ে এত ভালো লাগলো।কখন যে আবেগে চোখের জল ঝরে এলো বুঝতে পারি নাই. এত মর্মস্পর্শী লেখা। আসলেও আমার চাওয়ার ইচ্ছেগুলো নেহাত তুচ্ছ ।আমার ব্যক্তিত্ব কন মানে রাখে কি ? আমাদের সবকিছু বদলে যায় -বদলে ফেলি নাম ও ঠিকানা । এই অমোঘ সত্য সানজিদা রুমি চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছেন।অনেক অনেক ভালবাসা-

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ