আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও মুখাগ্নি করো আমায়------------ মুনা চৌধুরী ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    মুখাগ্নি করো আমায়------------ মুনা চৌধুরী



    মুখাগ্নি করো আমায়
    মুনা চৌধুরী

    ***

    তোমার শক্ত মুঠোয় ছিল আমার যুগল চন্দ্রচূড়

    ওতে উল্কা রেখেছিলে গাঢ় ঠোঁটে;

     সিঁদুর লাল পদ্ম ছুঁয়েছিলে সেদিন

    ভিজিয়ে দিয়েছিলে নরম পাপড়িগুলো;

     আমার পিঠ জুড়ে এঁকেছিলে বর্ষার ফালি

    যেন গুহায় প্রাগৈতিহাসিক ষাঁড়ের আঁচড়;

     আগুন পড়িয়েছিলে .......

    শৃঙ্গারে আর ক্ষুরধারে,

    প্লাবনে আর জলোচ্ছাসে

    পূজো দিয়েছিলে আমায়

    *

    দেবতা আমার,

    আজো কেন ঘুরে বেড়ায় আঁচলের স্নিগ্ধ রোদ তোমারি আঙিনায় ?

    আজো কেন ছুঁয়ে যায় মুখের উপর মুখোশ, তার উপর আরো মুখশ্রী ?

    আর কতকাল আঁকড়ে ধরে রাখবো এই স্বপ্নের সমীকরণ ?

    এর চেয়ে ঢের ভালো -

    দয়া করো

    কৃতার্থ করো

    চন্দনে মোড়াও;

    আজকের এই ভরা অপরাহ্নে

    আমার মুখাগ্নি করো

    *

    অসহ্য তোমার তির্যক অবহেলা

    অসহ্য তোমার স্পর্ধিত অহংকার

    অসহ্য তোমার উন্মত্ত দম্ভ

     অসহ্য ! অসহ্য !! অসহ্য !!!   

     http://www.alokrekha.com

    5 comments:

    1. নবদ্বীপ স্যান্নালNovember 23, 2021 at 4:39 PM

      মুনা চৌধুরীর "মুখাগ্নি করো আমায়" অনিন্দ্য প্রেমের কবিতা। খুবই ভালো লাগলো প্রেমের বর্ণনা। সাথে এক বেদনা। এতো নিবিষ্ট ভালো বাসার পর অবহেলা সত্যিই অসহ্য। মুনা চৌধুরীর লেখা কবিতা হৃদয়ের কাছাকাছি সর্বদা। অনেক ভালোবাসা কবি। ভালো থাকবেন।

      ReplyDelete
    2. মমতা শংকরNovember 23, 2021 at 10:47 PM

      মুনা চৌধুরীর "মুখাগ্নি করো আমায়" এক অনবদ্য প্রেমের কবিতা। খুবই ভালো লাগলো ।প্রেমের লীলার অপূর্ব বর্ণনা করেছেন এই কবিতায়। ভালোবাসার প্লাবনে প্লাবিত কবি। দারুন। তির্যক অবহেলা ,স্পর্ধিত অহংকার অথবা উন্মত্ত দম্ভ সেই প্রেম যখন কষ্ট দেয় তখন সত্যিই তা অসহ্য ! অসহ্য !! অসহ্য !!!

      ReplyDelete
    3. কবির কবিতা শুধু প্রেমের নয় প্রেমের সাথে সাথে আরো অনেক কিছু আসে যা ভবিতব্য। প্রেম যেমন মধুর শৃঙ্গার তেমনি বিবস্বতা থাকে। তাতে অসহ্য বা মুখাগ্নি করার প্রয়োজনীয়তা নেই। অতিরঞ্জিত।

      ReplyDelete
    4. রায়হান খানNovember 23, 2021 at 11:24 PM

      মুনা চৌধুরীর "মুখাগ্নি করো আমায়" এক অনবদ্য প্রেমের কবিতা। খুবই ভালো লাগলো ।

      ReplyDelete
    5. আলোকরেখার পাতায় কবি মেহরাব রহমানের "রেজারেকশন" কবিতায় পুনর্জন্মের জন্যে কবির একান্ত গভীর প্রার্থনার অনুরণন মিলিয়ে যেতে না যেতেই এর অব্যবতিত পরেই মুনা চৌধুরীর "মুখাগ্নী করো আমায়" কবিতা আমাদের সত্বাকে অবশ্যম্ভাবী ভাবে এক মার্গীয় স্তরে নিয়ে যায়, যেখানে এই পার্থিব দেহ বিসর্জনের প্রার্থনা স্বতত উচ্চারিত!

      হ্যাঁ, এই দেহ মৈথুনে শৃঙ্গারে একদা তপ্ত ও তৃপ্ত হলেও যখন হৃদয় যেতে চায় উত্তরোত্তর আনন্দ বিহারে তখনি যেন হয় নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ! জেগে ওঠা অন্তরাত্মা তখন এই দেহ পিঞ্জর এর সীমানা পেরিয়ে নিজের অস্তিত্ব সমর্পন করে অবয়বহীনতায় লীন হয়ে যেতে চায় আনন্দ সাগরে!

      শব্দ দিয়ে জীবন্ত ছবি আঁকায় পটিয়সী মুনা চৌধুরী তাঁর শৃঙ্গার তৃপ্ত দেহ-মনের ভালোলাগা যেমন পাঠকের সাথে ভাগাভাগি করেছেন; ঠিক তেমনি করে এর পরপরই অত্যন্ত সুনিপুনভাবে আমাদের সবাইকে বুঝিয়েছেন পুত-পবিত্র আদিতে ফিরে চন্দন সুবাসিত বাসরে মগ্ন হবার ক্ষণ উপস্থিত হবার পূর্বের যে অপেক্ষা সেটার কষ্ট!

      তাঁর "মুখাগ্নী করো আমায়" কবিতার মাধ্যমে পাঠকদের একটা মার্গীয় ধ্যানমগ্নতায় পৌঁছে দেবার জন্যে মুনা চৌধুরীকে প্রণতি!

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ