আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও নারীত্ব আমার অহংকার ! ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    নারীত্ব আমার অহংকার !




    নারীত্ব আমার অহংকার !

      সানজিদা রুমি-----
    আমি নারী! নারীত্ব আমার আমার অহংকার!
     আমি বিশ্ব বিধাত্রীআমি জন্মের আধার।
    আমি নই কোন দিবসের -নই বাঁধা বন্দি কালের যাত্রায়-
    আদি থেকে অন্ত নিত্যকালের চিরন্তন আমি অক্ষয়তায়।
    অদম্য অক্লান্ত সম্পূর্ণ নারী! নই পাত্র কৃপা-অনুকম্পার-
    তাকে বেঁধে রাখে সাধ্যি নেই কোন পুরুষ বিধাতার।
    আমি অর্ধাঙ্গিনী আমি অভিমানী প্রেমিকা,
    আমি ভানুসিংহের বিরহী বিধুর রাধিকা।
    আমি মধুসূদনের মেঘনাদবধ অমর কাব্য !
     মুকুন্দরামের দেবী চণ্ডীর মহিমা
    কোমল পদ্মস্নেহার্দ্রতা মমতার কেতন-
     আমি মঙ্গল ঘটের লক্ষী প্রতিমা।





    আমি সাখাওয়াত মেমোরিয়াল গার্লস স্কুল!

    আমি নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া ,

    আমি মমতা আর ভালবাসায়  সিক্ত মাদার তেরেসা !

    আমি  ক্ষুধাতুর আর্তের করুণাময়ী মা , দুঃখ জাগানিয়া।



    কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতা আমিশিখর হিমাদ্রির!
    নারী আমি! "মহাবিশ্বের মহাকাশ ফাড়ি’ উন্নত মম শির-
    আমি মৃন্ময়আমি চিন্ময়আমি অজর অমর অক্ষয়আমি অব্যয়
    বিশ্বের আমি চির-দুর্জয়আমি মানব দানব দেবতার ভয় " 









    চির-বিস্ময়!  আমি অপরিজ্ঞাতদুর্বোধ্যরহস্যময় বিশ্ববিধাতার 
    মম হৃদয়ে দীপ্ত নিগূঢ় অতিপ্রাকৃত রূপ নৈসর্গিক ভালোবাসার।
    আমি ঈশান-কোনের রুদ্র ঝঁঝা বৈশাখের দাহন খরা
    আমি নদীর কুলু কুলু ধ্বনি অঝর শ্রাবনের ধারা।    

    আমি কুমারীতন্বীষোড়শীর হৃদয়ের প্রেম উন্মন মন
    চঁচল চপল গোপন প্রণয়তা কাঁকন-চুড়ির কন-কন!
    আমি নব বধূকম্পিত চিত বঁধুর পরশ কম্পন
    নয়নে বাসনার বহ্ণি আমি তৃপ্ত অধরের চুম্বন।
    আমিই  জননী -- আমি উৎস মনুষ্য কুলের
    নবজাতকেরে দেখাই আলো করিনা প্রভেদ লিঙ্গের।
    শুভ্র কুন্তলে  দিদিমা আমিপিতামহী !প্রৌঢ়া আমি রমণী
    ঘুমন্ত শিশুর নিশ্চিত কোলআমি ঘুম পাড়ানিয়া রাগিণী।


    আমি বসুধা-! আমি মমতার প্রতিমুর্তি! আমি- দূর্গা আমি- কালী!
    মানি না প্রণালীবদ্ধ নিয়মনিষ্ঠ দলিত নিয়ম শৃঙ্খল
    আমি শাসকেরে করি ভস্ম আমি নির্ভীক দুর্দম অটল
    বজ্র, বহ্ণি, স্ফুলিঙ্গ স্পর্ধিত তেজস্বিনী  দাবানল।


    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    11 comments:

    1. নারীত্ব আমার অহংকার !এ কথা এত জোরাল ভাবে এই কবিতায় লিখেছেন সানজিদা রুমি। এমনি আমারা শক্তিশালি। প্রতিটি নারীর এই কবিতাটা হওয়া উচিৎ মূলমন্ত্র। অনেক অনেক অনেক অনেক ভালবাসা অঢেল

      ReplyDelete
    2. দুই কবির দুই কবিতা কি দুজনার জুগল্বন্দি!!!!নাকি কথপোকথন ?? যাই হোক দুটি কবিতাই অনন্য। দুজনকেই শুভচ্ছা আর ভালবাসা

      ReplyDelete
    3. নারী লক্ষ্মীর প্রতিমা। নারী মমতাম... লজ্জাই নারীর ভূষণ এই সব সুন্দর উপমা দিয়ে ভিলিয়া রাখা হয় আমাদের। আমরা তাতেই খুশি।সানজিদা রুমি কে অনেক অনেক ধন্যবাদ ওঃ কৃতজ্ঞতা জানাই নারীর আসল রুপ তুলে ধরার জন্য।

      ReplyDelete
    4. কি বলিষ্ঠ আর শক্তিশালী লেখা। নারীদের নিয়ে বহু কবিতা লেখা হয়েছে সেগুলু নারীবাদী লেখা। সানজিদা তুমি একজন সম্পূর্ণ নারীকে এঁকেছ তোমার কবিতায়। ধন্য তুমি ! আমার গর্ব তুমি।অনেক ভালবাসা

      ReplyDelete
    5. কবি নজ্রুলের বিদ্রোহী কবিতা আমাদের আজও লড়ার শক্তি যোগায়।তাঁর কবিতা অন্তরভুক্ত করে নতুন তুমি এক রুপ দিয়েছো। আজ নারীদের শক্তি হবে তোমার কবিতা। খুব ভাল লিখেছ ।আরো ভাল লেখ এই কামনা করি ।

      ReplyDelete
    6. সানজিদা দারুন লিখেছ! ভাবতাম তুমি নরম আদুরে এক মেয়ে।তুমি যে এত তেজস্বিনী এত শক্তিশালী তোমার ভাষা। আমি দিন দিন তোমার ভক্ত হয়ে উঠছি,অনেক প্রার্থনা এগিয়ে যাও । শুভ কামনা

      ReplyDelete
    7. আমি তোমার কবিতাটা আবৃতি করতে চাই তারা টিভি পরের অনুষ্ঠানে। মল্লিকা দি আমার খুব প্রিও তুমিও।"দ্রৌপদী জন্মা কবিতার উত্তর তোমার কবিতা নারীত্ব আমার অহংকার !

      ReplyDelete
    8. দারুন লিখেছ সাঞ্জিদা ! আমি মুগ্ধ ! কবি মল্লিকা সেন চলে যাওয়ার পর ভেবেছিলাম এই শুন্যতা পুরন হবে না ।তোমার কবিতা পড়ে আমি অনেক আশবাদি।আমি মনে করি এই দশকের নারীদের উপর লেখা নারীত্ব আমার অহংকার ! সেরা কবিতা!অনেক শুভেচ্ছা ভাল থেক!

      ReplyDelete
    9. Excellent piece of work! Please keep it up

      ReplyDelete
    10. এত শক্তিশালী আর সঠিক শব্দ চয়ন।দারুন!এটা শুধু কবিতা না এক সম্পূর্ণ বক্তব্য। তোর এই কবিতা নতুন ইতিহাস তৈরি করবে আমি বললাম ।চারুলতার সাথে আমিও এক মত 'কবিতা নারীত্ব আমার অহংকার"এই দশকের নারীদের উপর লেখা সেরা কবিতা। তোর লেখা নিয়ে আমি অনেক আশবাদি। অনেক দোয়া করি আর ভাল লেখ।

      ReplyDelete
    11. আমিও চারুলতাদির কথাই বলছি সত্যি কবি মল্লিকা সেন চলে যাওয়ার পর ভেবেছিলাম এই শুন্যতা পুরন হবার নয়। এখন সানজিদার কবিতা পড়ে আমিও অনেক আশবাদি। দারুণ ভাল লিখেছেন!এই দশকের নারীদের উপর লেখা শ্রেষ্ঠ কবিতা! অনেক শুভেচ্ছা ।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ