আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও রাজন্যরাজ / মেহরাব রহমান ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    রাজন্যরাজ / মেহরাব রহমান



    রাজন্যরাজ / মেহরাব রহমান

    রাজন্যরাজ তাজউদ্দিন
    তুমিহীন বাংলাদেশ এখন পঙ্গু ভুখন্ড
    বিকৃত এবড়ো থেবড়ো
    হৃদয়ের রক্তক্ষরণ নিজবাসভুম
    পচা বৃষ্টিতে
    দুর্গন্ধ জলে
    ভিজছে ভীষণ
    নুয়ে পড়া নিথর বাংলাদেশ
    তুমি থাকলে এক অজপাড়াগেয়ে কবির অনড় বিশ্বাস
    এই চলমান বাংলামানচিত্রের মান অন্যরকম হতো
    সমবন্টনের প্রজাপতি নির্বন্ধ উড়তো মুক্ত আকাশে
    রমরমা ডামাডোল বাজতো
    প্রবাহিত গ্রাম এবং  বন্দরে
    শহর গঞ্জে
    এখন অমাবস্যা নগরে
    কিরকম ডুকরে কাঁদে
    মরা কান্না কাঁদে এক স্বাধীন স্বদেশ
    কৃষকের ফসল ফলানো  ক্ষয়িষ্ণু সময়
    শ্রমিকের মুগুরে থেতলানো বর্তমান
    কুমোরের আগুনে পোড় খাওয়া হৃদপিন্ড
    জলের দাপটে দুমড়ে যাওয়া সাহসী নৌকোগুলো
    নিশ্চয়ই মাভৈ মাভৈ
    জীবনের ঝন ঝন
    রুমুঝুমু গান গাইতো
    উচ্চো উচ্চাঙ্গ কন্ঠে
    জনগণদেবতা জাগতো
    পশ্চিমে উত্তরে
    পূবে দক্ষিনে
    হিমাচল আসমুদ্র
    স্বর্নাভো বাংলাদেশ জুড়ে
    তাজহীন স্থগিত বঙ্গস্তপতি
    রজন্যরাজ চেয়ে দেখ
    এক জন্মান্ধ দুরত্ব থেকে
    তোমার আজন্ম বাসভূমে দিগন্ত ব্যপি দুরভিসন্ধি
    জর্জরিত বদ্বীপে
    নিয়ত বপন হচ্ছে ঘৃণ্যবীজ
    তোমার করটিতে
    ধমনীতে জেগেছিল
    অতন্দ্রপ্রহরী- স্বদেশপ্রেম
    এই বিভক্ত বিচ্ছিন্ন সময়ে
    প্রেমহীন এক ভুখন্ডে
    তোমাকে ভীষণ ভীষণ প্রয়োজন
    হায়রে বৈরী সময়
    তাজের রক্তকনিকাজাত নবধারার তাজ
    স্তিমিত কেন আজ
    ভাবো ভাবো
    তোমার শেকড়ের সন্ধানে একবার ভাবো
    জাগো জাগো
    জাগোহে বাহে জাগো
    নুতন স্রোতের কঠিন মানব জাগো
    নবপ্রজন্মের মুকুটবিহীন
    আর এক তাজউদ্দিন তুমি ফল্গুধারায় জাগো

     http://www.alokrekha.com

    3 comments:

    1. আকবর হোসেন চৌধুরীSeptember 30, 2017 at 4:37 PM

      বঙ্গবন্ধুর কথা নেতৃত্বতাঁর অনস্বীকার্য।কিন্তু তাজউদ্দিন আহমেদের অবদান ছাড়া তাঁর নেতৃত্ব ছাড়া কি এই স্বাধীনতা এত সহজ লভ্য হত ?কবি মেহরাব রহমান ও আলকরেখাকে কৃতজ্ঞতা এই মহামানবকে কৃতজ্ঞতা ভবে স্মরন করবার জন্য।

      ReplyDelete
    2. অজয় সেন গুপ্তSeptember 30, 2017 at 5:28 PM

      "তাজের রক্তকনিকাজাত নবধারার তাজ স্তিমিত কেন আজ ভাবো ভাবো তোমার শেকড়ের সন্ধানে একবার ভাবো জাগো জাগো জাগোহে বাহে জাগো নুতন স্রোতের কঠিন মানব জাগো নবপ্রজন্মের মুকুটবিহীন আর এক তাজউদ্দিন তুমি ফল্গুধারায় জাগো" -দারুন এনম কথা কবি মেহরাব রহমান- ই কবিতায় লিখতে পারেন।

      ReplyDelete
    3. অনামিকা মল্লিকSeptember 30, 2017 at 8:29 PM

      মরা কান্না কাঁদে এক স্বাধীন স্বদেশ-কৃষকের ফসল ফলানো ক্ষয়িষ্ণু সময়-শ্রমিকের মুগুরে থেতলানো বর্তমান কুমোরের আগুনে পোড় খাওয়া হৃদপিন্ড-অপূর্ব ভাষা অপুরন বানী সকলই প্রযোজ্য তাজুদ্দিন আহমেদের জন্য ,অনেক ধন্যনাদ কবি মেহ্রাব রহমান

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ