আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ --- মেহরাব রহমান ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ --- মেহরাব রহমান














    মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ
    মেহরাব রহমান

    এক অদ্ভুত সন্ধ্যায় হাঁটু অবধি
    বিষাক্ত জল ভেঙে চলেছি 
    ক্রমশঃ নিভে আসা বৈকালিক আলো থেকে
    ভয়ার্ত অন্ধকারের দিকে
    অন্তহীন এই চলা
    একটু দূরে
    ইঞ্জিনের জাহাজ
    মানবহীন পালাচ্ছে কোথায় ?
    আজ ভোরে ঘুম ভাঙে
    এরকম দুঃস্বপ্নে I

    তবেকি মৃত্যুর এটাই বিমূর্ত রূপ
    আমি মৃত্যুদিন গুনছি ক্যালেন্ডারে
    শুক্র,শনি, রবি,..............আবার সেই শনি
    কোথাও যাবোনা আর
    সব পচে গেছে
    হিংসায়, অতলান্ত ঈর্ষায়, ঘৃনায় মত্ত পৃথ্বী
    এমনকি ঘুনপোকা বন্ধুত্বে, ভালোবাসায় l
    মেকি পৃথিবীর
    গনজনতার কাছে আর যাবোনা l
    নষ্ট, ভন্ড ;
    সব পচে গেছে
    আমি কোথাও যাবোনা আর l   
    ঘর থেকে ঘরে
    এরপর অন্য ঘরে.....................
    অজানা কোন পারাপারে?


     http://www.alokrekha.com

    15 comments:

    1. মিনহাজ রহমানJune 8, 2018 at 5:16 PM

      বিনষ্ট পৃথিবী বসবাসের অযোগ্য। মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ ডাক দেয় হৃদয়ের অতলান্তিকে।মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" কবিতার সেই ডাক প্রতিফলিত হয়েছে । অপূর্ব লেখা।

      ReplyDelete
    2. মোহন সিরাজীJune 8, 2018 at 6:27 PM

      মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" কবিতার বিষয়বস্তু অনবদ্য। এই নষ্ট হয়ে যাওয়া পচে যাওয়া "হিংসায়, অতলান্ত ঈর্ষায়, ঘৃনায় মত্ত পৃথ্বী এমনকি ঘুনপোকা বন্ধুত্বে, ভালোবাসায় "lমেকি পৃথিবীর দিনমানের থেকে মৃত্যুর অপরূপ রূপ কবি ফুটিয়ে তুলেছেন।

      ReplyDelete
    3. কবি মেহরাব রহমানের লেখা কবিতা আমাদের ভাবতে বাধ্য করে জীবনের নানাদিক ,সে প্রেমের হোক -অনুর ভেতর পরমাণু না দুঃস্বপ্নের লেখা হোক না কেন। তার প্রতি কবিতা আমাদের বারবার প্রাণে বিবেকে আঘাত করে। মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" কবিতা উত্কৃষ্ট চমৎকার জীবন বোধের প্রকাশ।অপূর্ব বিষয় বস্তু,ভাষাভাব ও শব্দচয়ন ও রচনা শৈলী মিলিয়ে অনবদ্য ও অনিন্দ্য এক কবিতা।

      ReplyDelete
    4. রিজওয়ানা কবিরJune 8, 2018 at 8:34 PM

      মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ
      মেহরাব রহমান
      মৃত্যু বোধের চমৎকার প্রকাশ।অপূর্ব বিষয় বস্তু,ভাষাভাব ও শব্দচয়ন ও রচনা শৈলী মিলিয়ে অনবদ্য ও অনিন্দ্য এক কবিতা।
      কবিকে জানাই হাজার অভিনন্দন আর
      প্রানঢালা শুভেচ্ছা ,আলোকরেখাকে ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    5. Dilip Kumar Banik, D.C. BandarbanJune 8, 2018 at 8:43 PM

      মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ
      মেহরাব রহমান
      কবিতাটা পড়ে খুব ভাল লাগলো। দারুন কবিতা ও তার অভিব্যক্তি।
      উত্কৃষ্ট চমৎকার,
      অপূর্ব বিষয় বস্তু, অনিন্দ্য এক কবিতা।”
      অপূর্ব শব্দশৈলী
      অপরূপ-বহুবর্ণ ও ভাষার প্রকাশ।
      ”কবিকে অনেক অভনন্দন আর শুভেচ্ছা ”

      ReplyDelete
    6. ঋতু মীরJune 8, 2018 at 9:26 PM

      আমি কোথাও যাবোনা আর l
      ঘর থেকে ঘরে
      এরপর অন্য ঘরে.....................
      অজানা কোন পারাপারে? অসাধারণ অভিব্যাক্তি! খুব কষ্টের এই সত্য- মৃত্যু!!মহান সেই ঘুম! হিংসায়, অতলান্ত ঈর্ষায়-ঘুণপোকা বন্ধুত্বে, ভালবাসায় ! কোথাও যাবনা আর...!! ভিতরের অভিমান আহত এই উচ্চারণ মিলে যায় মনের কথায়। বিষণ্ণ হয়ে ওঠে মন । মৃত্যু !! বিমূর্তই থাকনা! ধন্যবাদ !! কবি মেহরাব রহমান!

      ReplyDelete
    7. শাকিলা জাফরJune 8, 2018 at 9:58 PM

      মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ
      মেহরাব রহমান
      ঘর থেকে ঘরে
      এরপর অন্য ঘরে...........
      অজানা কোন পারাপারে?
      কি গভীর ভাব।
      বহুবার কবিতাটা পড়ালাম।
      কবি যেন আমাদের হৃদয়ের কথাই বলছেন। ..........
      চমত্কার প্রকাশ।
      কবিকে অনেক অভিনন্দন আর সাধুবাদ ”
      আলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    8. কেরামত মাওলাJune 8, 2018 at 10:09 PM

      মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" কবিতা উত্কৃষ্ট চমৎকার জীবন বোধের প্রকাশ। গনজনতার কাছে আর যাবোনা l
      নষ্ট , ভন্ড ;
      সব পচে গেছে
      আমি কোথাও যাবোনা আর l
      ঘর থেকে ঘরে
      এরপর অন্য ঘরে.....................অজানা কোন পারাপারে? দারুন কবিতা ও অভিব্যক্তি। উত্কৃষ্ট চমৎকার জীবন বোধের প্রকাশ।অপূর্ব বিষয় বস্তু,ভাষাভাব ও শব্দচয়ন ও রচনা শৈলী মিলিয়ে অনবদ্য ও অনিন্দ্য এক কবিতা।

      ReplyDelete
    9. ফারজানা দিওয়ানJune 8, 2018 at 10:14 PM

      মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ
      মেহরাব রহমান
      মৃত্যু আমাদের নিত্যক্ষনের সঙ্গী।
      কবি দারুন ভাবে তার কবিতায় ফুটিয়ে তুলেছেন ।
      উত্কৃষ্ট চমৎকার জীবন আর মৃত্যু বোধের প্রকাশ।
      অপূর্ব বিষয় বস্তু,ভাষাভাব ও শব্দচয়ন ও রচনা শৈলী মিলিয়ে অনবদ্য।
      কবিকে অনেক শুভেচ্ছা ।

      ReplyDelete
    10. সোহরাব বিন হোসেনJune 8, 2018 at 10:38 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ"
      "সব পচে গেছে
      আমি কোথাও যাবোনা আর l
      ঘর থেকে ঘরে
      এরপর অন্য ঘরে.....................
      অজানা কোন পারাপারে?"
      অনবদ্য শব্দ চয়ন,অনিন্দ্য সুন্দর শৈল্পিক বুনন হৃদয় আন্দোলিত করে ।
      " মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" এমন এক কবিতা যা সবাইকে ভাবিয়ে তোলে ।
      মৃত্যু বিষয়টি কবি তার লেখনীতে ফুটিয়ে তুলেছেন ।
      অনেক অনেক শুভেচ্ছা কবিকে
      ও আলোকরেখারকে অনেক ধন্যবাদ এমন একজন গুণী কবির
      সাথে পরিচয় করিয়ে দেবার জন্য

      ReplyDelete
    11. আলোকরেখায় তো আমরা জীবনের জয়গান গাইছিলাম ! হঠাৎ করে মৃত্যুকে নিয়ে উঠে পড়ে লাগলেন কেন সেটা আমার বোধগম্য হচ্ছে না ! আর পাঠকদের মন্তব্য এতো একঘেঁয়ে আর গতানুগতিক! সেইসাথে মন্তবব্যের ভেতর কবিতার অংশ জুড়ে দিয়ে মন্তব্যকে অহেতুক বড় করা ! আলোকরেখা তার নান্দনিকতা হারাতে বসেছে বলে আশংকা হচ্ছে !

      ReplyDelete
      Replies
      1. মোহন সিরাজীJune 9, 2018 at 11:27 PM

        কিছু মানুষ থাকে নেতিবাচক। তারা সব কিছুতেই মন্দ দেখে। মৃত্য জীবনের অংশ তাই মৃত্যুর কথা আসতেই পারে। তাছাড়া কবি মেহরাব রহমানের "মৃত্যুর বিমূর্ত রূপ" দারুন মার্গের কবিতা। আর মন্তব্যের ব্যাপারে যিনি লিখেছেন (নামহীন ) আর সাথে আমি সহমত পোষণ করিনা। আলোকরেখা আমাদের সবার প্রিয়। এখানে আমরা জ্ঞানের ও প্রজ্ঞার অন্বেষণ করি। ভালো লাগলে প্রশংসা করি মন্দ লাগলেও বলি। আমার মনে হয় মন্তব্য ব্যক্তিগত ব্যাপার যার যেমন খুশি মন্তব্য করবে ,এখানে কার ভালো লাগলো কি না আসে যায় না। আর তাতে আলোকরেখার গুনগত মান বা তার নান্দনিকতা নষ্ট হওয়ার প্রশ্ন কিভাবে উঠে ?

        Delete
    12. তমা কর্মকারJune 8, 2018 at 11:20 PM

      চমৎকার রচনাশৈলী ও স্বতন্ত্র ভাব ও ভাষা প্রয়োগে চমৎকার একটা কবিতা ।কাব্যিক ছন্দোবদ্ধ দারুন কবিতা। অনেক শুভেচ্ছা কবি। আপনি ভালো থাকুন আরো লিখুন !

      ReplyDelete
    13. আমি ঈশ্বরের করণিক
      তিনি দেন আমি লিখি
      যে গুরু দায়িত্ব তিনি দেন তা প্রকাশ করতে
      আমার ভেতর খুব রক্তক্ষরণ হয়
      এক ধরণের প্রসব বেদনা বলা যায়
      শব্দের, ছন্দের নানা কৌশল অবলম্বন
      করতে হয়
      প্রকাশ করতে পারলে
      আমি আনন্দে আত্মহারা
      আমি কৃতজ্ঞ তাঁর কাছে
      আর আমার এই ভাবনা যখন
      আমার পাঠক উপলব্ধি করে
      প্রশংসা করেন তখন আমি অবনত
      তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞ হই
      আমি সকল সুমন্তব্যকারি পাঠকদের কাছে
      আমার অন্তহীন কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি

      ReplyDelete
    14. ঋতু মীরJune 10, 2018 at 3:12 PM

      মন্তব্য এবং গঠনমূলক সমালোচনা এই দুইয়ের পার্থক্যটা বিশাল। কোন একটা লেখা বা কবিতা পড়ার পর পাঠকের মন্তব্য আসে তাঁর তাৎক্ষনিক আবেগ, ভালোলাগা, উচ্ছ্বাস আর উপভোগের আনন্দ থেকে। সেই মন্তব্য সুচিন্তিত না হলেও একজন লেখক/কবি/সৃজনশীল মানুষের কাছে তার মুল্য অপরিসীম । পাঠকের স্বতঃস্ফূর্ত মন্ত্যব্য বা প্রশংসা সাময়িক হলেও একজন লেখককে/কবিকে নিঃসন্দেহে সৃষ্টিশীলতায় এগিয়ে নিতে পারে বহুদূর। ব্যাক্তিক আক্রমণ বর্জিত ইতিবাচক সু-মন্তব্য সেটা যে বিষয়েই হোক তা পাওয়া মানুষের স্বাভাবিক প্রত্যাশা। গঠনমুলক সমালোচনার বিষয়টা এক্ষেত্রে হয়তো একটু ভিন্ন। সুচিন্তিত গঠনমূলক সমালোচনা লেখককে উপকৃতই করে এবং সম্পূর্ণ ব্যাপারটা হয়তো এভাবেই নান্দনিক হয়ে ওঠে। শেষে- পাঠে আমার অনাবিল আনন্দ! আর লেখালেখির মত সৃষ্টির আনন্দে এই ক্ষুদ্র জীবন উদ্বেলিত প্রায়শ। পাঠকের মন্তব্য সেই ক্ষুদ্রতায় অনায়াস এক বিশাল প্রাপ্তি, এক পূর্ণতা! ধন্যবাদ আলোকরেখা! সুপ্রিয় পাঠক!‘আমারে তুমি অশেষ করেছো …!’

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ