আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও মহাকালের সড়ক ---------- মেহরাব রহমান ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    মহাকালের সড়ক ---------- মেহরাব রহমান













    মহাকালের সড়ক
    মেহরাব রহমান

    মানুষের বুদ্ধির কাছে এই মন নতজানু।
    বুদ্ধি খাটিয়ে মানুষ পরেছে আভরণ
    আজ তাই নিরাভরণে তিল তিল তোমার
    উষ্ণ নির্যাস পাই।
    মানুষ জ্বেলেছে আগুন,
    মেধা  ও মনন দিয়ে করেছে নানা উদ্ভাবন।

    আজ তাই পোড়া মাংসের গন্ধ, ধোঁয়া
    ওঠানো গরম ভাত, ঘোর বর্ষায় ভাজা
    ইলিশের স্বাদ, মাছের ঝোল, শীতের
    রকমারি পিঠা, থাই স্যুপ, চিনে খাবারের স্বাদ, বার্গার, পিজ্জায় সাজানো টেবিল,
    জাপানি বাসন-কোসন, বোন চায়নার
    চায়ের পেয়ালা, তারই সঙ্গে রকমারি নানা বর্ণ বেলোয়ারি ঝাড়বাতি, পূর্ণিমার চাঁদ  কিংবা জ্যোৎস্নার আলোকেও হার মানায়।
     এইসব আবিষ্কারে নিমজ্জিত কবিতার
    উপাদান I আমি মানুষের বুদ্ধির
    কাছে অবনত l হাঁটু গেড়ে কুর্নিশে নিমগ্ন এখন। মানুষের শানিত মগজ কর্ষণ
    এনেছে দৃষ্টির আঙিনায় বিমুগ্ধ দৃশ্যাবলি।
    চাইলেই তড়িঘড়ি পেয়ে যাই টিভির পর্দায় বন্যা কিংবা মিতা হকের সম্মোহিত
    রবীন্দ্রসংগীত অথবা ফরিদা পারভিনের
    সজল কণ্ঠের লালনগীতি, বাড়ির কাছে আরশি নগর সেথা একঘর পড়শি বসত করে। তারবিহীন সেলফোনে ভেসে ওঠে প্রিয় মুখ, প্রিয় কণ্ঠ। ইচ্ছে হলেই চলে
    যাই আমেরিকা, ইংল্যান্ড, জাপান;
    ইচ্ছে হলেই ফিরি বাংলানীড়ে
    আকাশ জাহাজ চড়ে যখন-তখন।
    মানুষের মেধাইনাই টেলিগ্রাম, নাইরে
    পিয়নের বেদনা দুহাতে সরায়।
    কালিদাসের মেঘদূতকে
    আমি আর ডাকি না।
    ইলেক্ট্রনিক মেইলে মুহূর্তে পেয়ে যাই, প্রিয়জনের রঙিন চিঠি। মদিরা পাত্র হাতে
    বেদনাবিধুর রাতে
    ফ্রেঞ্চ ওয়াইনের বুনো গন্ধ
    অসীম দুঃখেও বাজায় আনন্দ;
    কান্না বর্ষণের বিষাদ ঝরে যায়।
    ভরে যায় প্রাণ l
    এত যে সুখ, আনন্দ প্রপাত

    এইসব মানুষেরই দান।

     http://www.alokrekha.com

    10 comments:

    1. শ্রেয়া ব্যানার্জিSeptember 1, 2019 at 3:20 PM

      কবিতাটা পড়ে খুব ভালো লাগলো। কবি মেহরাব রহমান আমার খুব প্রিয় কবি। "মহাকালের সড়ক" কবিতায় কবি মেহরাব রহমান মানব জীবনের যে মাহাত্ম অংকিত করেছেন তা সত্যি প্রশংসার যোগ্য।

      ReplyDelete
    2. সালেহ আহমেদSeptember 1, 2019 at 3:29 PM

      "মহাকালের সড়ক" কবিতায় কবি মেহরাব রহমান মাসুষের প্রজ্ঞার বর্ণনা করেছেন অতি সুন্দরভাবে যা আমাদের চোখের সামনে তা প্রতীয়মান হয়। তিনি অংকিত করেছেন "মানুষের বুদ্ধির কাছে এই মন নতজানু।" মানুষের বুদ্ধির নির্যাস পাই এখানে। খুব ভালো কবিতা। কবিকে শুভেচ্ছা।

      ReplyDelete
    3. মিতা রহমানSeptember 1, 2019 at 3:40 PM

      "মহাকালের সড়ক" কবিতায় কবি মেহরাব রহমান মানবের বুদ্ধিমত্তার কাছে মন শ্রদ্ধায় নতজানু তারি চর্চা করেছেন। মানুষই আভরনে আবৃত করেছে নিজেদের। বুদ্ধিমত্মার জোরে জেলেছে আগুন। সেই জন্যই মানব সৃষ্টির সেরা জীব। মূলত এই কথাটাই উঠে এসেছে কবির কবিতায়। ভালো থাকুন। আরো ভালো ভালো কবিতা উপহার দিন।

      ReplyDelete
    4. পিনাকী ঘোষSeptember 1, 2019 at 3:48 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মহাকালের সড়ক" কবিতা পরে খুব ভালো লাগলো। কিছু কবির কবিতা শুধু পড়তেই ভালো লাগে। যার মাঝে রয়েছে ভালোলাগা ভালোবাসার নির্যাস। তেমনি কবি মেহরাব রহমান। মন্তব্য করার মতো যোগ্যতা সবার কি থাকে। ভালো লাগে তাই পড়ি। কবি আপনার কবিতা খুব ভালো লাগে সে যাই কবিতা হোক।

      ReplyDelete
    5. মোহন সিরাজীSeptember 1, 2019 at 3:55 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মহাকালের সড়ক" কবিতা খুব ভালো লাগলো। কিছু কবি মেহরাব রহমানের কবিতা শুধু পড়তেই ভালো লাগে না আবৃতি করতে যেন প্রাণ পায় ।পিনাকী ঘোষের মন্তব্যের সূত্র ধরেই বলছি - কবি মেহরাব রহমানের কবিতার মাঝে রয়েছে ভালোলাগা ভালোবাসার নির্যাস। মন্তব্য করার মতো যোগ্যতা সবার কি থাকে? ভালো লাগে তাই পড়ি। কবি আপনার কবিতা খুব ভালো লাগে সে যে কোন কবিতা হোক। অনেক ভালো বাসা কবি। অনেক অনেক শুভেচ্ছা। ভালো থাকবেন।

      ReplyDelete
    6. কবি মেহরাব রহমানকে "মহাকালের সড়ক" কবিতা লেখার জন্য অনেক অভিনন্দন। খুব ভালো লাগলো।প্রাণকাড়া কি ভাব।,দৃঢ় বক্তব্য আর শব্দ দিয়ে ভাবার প্রয়োগ।দারুন কবিতা ,অনেক শুভেচ্ছা কবি !

      ReplyDelete
    7. আলোক সেন গুপ্তSeptember 1, 2019 at 4:01 PM

      কবি মেহরাব রহমানকে "মহাকালের সড়ক" চমৎকার রচনাশৈলী ও স্বতন্ত্র ভাব ও ভাষা প্রয়োগে চমৎকার একটা কবিতা ।কাব্যিক ছন্দোবদ্ধ দারুন কবিতা। অনেক শুভেচ্ছা কবি। আপনি ভালো থাকুন আরো লিখুন !

      ReplyDelete
    8. রেহানা সুলতানাSeptember 1, 2019 at 5:04 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মহাকালের সড়ক" চমৎকার কবিতা। মানুষ
      মেধা ও মনন দিয়ে করেছে নানা উদ্ভাবন।সেই সাথে সভ্যতাও। আমাদের দিয়েছে নানা জীবন ধরণের উপকরণ। কবি তার কবিতায় খুব সুন্দর সেই মানুষের প্রশংসায় নতজানু। খুব ভালো লাগলো। অনেক শুভেচ্ছা কবি।

      ReplyDelete
    9. কবিতা রায়September 1, 2019 at 5:20 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মহাকালের সড়ক" চমৎকার ভিন্নধর্মী কবিতা।
      মানুষ মেধা ও মনন দিয়ে করেছে নানা উদ্ভাবন। আজকের যা কিছু পৃথিবীতে উপভোগ করছি সবই মানুষের অবদান। সে বহু উপকরণ দিয়ে ভরা সুদৃশ্য খাবার টেবিল ,নানান রকম তৈজস পাত্র ,হৃদয় হরণকারী গানের ডালি। আরো বহুকিছু মানুষের মগজের ফসল। আর কবি এই সব মানুষের অবদান অতি বিচক্ষণতার সাথে সুনিপুনভাবে অংকিত করেছেন। অনেক অভিনন্দন কবি এমন একটা কবিতা উপহার দেবার জন্য।

      ReplyDelete
    10. রুপা গাঙ্গলীSeptember 1, 2019 at 6:39 PM

      কবি মেহরাব রহমানের "মহাকালের সড়ক" চমৎকার ভিন্নধর্মী কবিতা।মানুষ মেধা ও মনন দিয়ে করেছে নানা উদ্ভাবন। আজকের যা কিছু পৃথিবীতে উপভোগ করছি সবই মানুষের অবদান। শুধুই এটাই সব নয় মূলতঃ কবিতা "মহাকালের সড়ক" অধ্যাত্মধর্মী। মানুষ শ্রষ্টার সৃষ্টির সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টি। কবির কবিতায় এটাই অনবদ্য ভাবে তুলে ধরেছেন। খুব ভালো লাগলো। শুভাশীষ কবিকে।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ