আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও তুমি বেরিয়ে পড়ো------------- সানজিদা রুমি ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    তুমি বেরিয়ে পড়ো------------- সানজিদা রুমি




    তুমি বেরিয়ে পড়ো
    সানজিদা রুমি 

    তুমি বেরিয়ে পড়ো আপনার  খোঁজে
    আর নয় আমগ্ন হতাশায় নিমগ্ন-নিলীন
    তুমি নিরন্তর সম্মুখযাত্রী -
    করো নিজ অস্তিত্বের অন্বেষণ।
    জীবনসত্য তোমার  দ্রুতি 
    কালচক্র জীবনের গতি।
     সময় তোমার অপেক্ষায়
    সেও ধৃত হবে সীমার চূড়ায়।
    তোমার চারপাশে শৃঙ্খল
    হিজাব তোমার নয় আবরণ
    আভরণও নয় কোনমতে
     তোমার অস্তিত্বের বেড়ি
    নিগ্রহপ্রতিবন্ধ উৎপীড়ন।
    তুমি  মৃন্ময়তুমি  চিন্ময়,
    অজর অমর  অব্যয়।
    বিশ্বের  চির-দুর্জয় তুমি
    মানব দানব দেবতার ভয় "
    অদম্য অক্লান্ত সম্পূর্ণ নারী!
    নও পাত্র কৃপা-অনুকম্পার,
    তোমায় বেঁধে রাখে -
    সাধ্যি নেই কোন পুরুষ বিধাতার।
    তুমি  ঈশান-কোনের রুদ্র ঝঁঝা
    তেজনস্বিনী মহাকাল -
    সেই  আগুনে  গলাও তোমার গায়ের বেড়ি
    বানাও তাকেই  সশস্ত্র  হাতিয়ার।
    তোমার শরীর মন
    পবিত্রতার মূর্ত স্বরূপ
    তুমি ধারণ করো মূল সত্য
    ধর্ষক  পারে  না করতে তোমায়
    অশুচিনোংরাকলুষিত।
    গ্লানিহীন তোমার সত্তা
    ছুঁতে পারে না  কোন  কুশ্রী  বীভৎসতা।
    সাক্ষী সাবুদ প্রমাণপত্র সবই 
    তোমাতেই অভীষ্ট
    তোমারই পরীক্ষা নেয়  কৃমিকীট
    ঘৃণিত হীন পাপিষ্ঠ।
    ভয় নেই তোমার এগিয়ে চলো
    প্রদীপ নয় দিকদর্শী মশাল জ্বালো।
    তোমার হৃদয়ে রোজ সূর্যোদয়
    সত্যের কল্যাণের
    তাতে ভস্ম হবে ক্রূরমতি কামনা
    তোমারই হবে জয়।
    ওড়না  তোমার বিজয়ধ্বজা  তোমার মানচিত্র
    কোন কামাসক্ত হাত স্পর্শ করুক ওকে
    ভূকম্পন হবে ভস্মিত অগ্নিবানে
     সেই  ধর্ষিত হবে -
    তুমি এগিয়ে চল নির্ভিক পদচারণে।
    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    4 comments:

    1. রুমির অসাধারণ সাহসী কবিতা
      প্রতিবাদী , আশাজাগানিয়া পংক্তিমালা
      দারুন সত্যের প্রকাশ
      কবি আমার মন ভরে গেলো
      রুমি আমার বিনম্র প্রণতি গ্রহণ করো

      ReplyDelete
    2. মিতা নুরJanuary 25, 2021 at 4:29 PM

      তুমি বেরিয়ে পড়ো------------- সানজিদা রুমির কবিতার কথা এত জোরাল।দারুন ভাবে এই কবিতায় লিখেছেন সানজিদা রুমি। এমনি আমারা শক্তিশালি। প্রতিটি নারীর এই কবিতাটা হওয়া উচিৎ মূলমন্ত্র। অনেক অনেক অনেক অনেক ভালবাসা অঢেল।

      ReplyDelete
    3. গোপা সরকারJanuary 25, 2021 at 4:36 PM

      তুমি বেরিয়ে পড়ো------------- সানজিদা রুমির কবিতার কি বলিষ্ঠ আর শক্তিশালী লেখা। নারীদের নিয়ে বহু কবিতা লেখা হয়েছে সেগুলু নারীবাদী লেখা। সানজিদা তুমি একজন সম্পূর্ণ নারীকে এঁকেছ তোমার কবিতায়। ধন্য তুমি ! আমার গর্ব তুমি।অনেক ভালবাসা।

      ReplyDelete
    4. তুমি মৃন্ময়, তুমি চিন্ময়,
      অজর অমর অব্যয় ........... ভালোবাসা অবিরাম

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ