আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও মনে আছে। - সুনিকেত চৌধুরী। ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    মনে আছে। - সুনিকেত চৌধুরী।

                                                     মনে আছে।  

    - সুনিকেত চৌধুরী।  

     

    কাল রাতে তোমার বুকে রাখতে দাওনি আমার মাথা

    এই নিয়ে তিন দিন হলো আমার গন্ধ নাওনি তুমি,

    অন্তরীণকাল সমাপ্তির এই তিরিশ দিনের মাথায় 

    তুমি আমায় মেসেজ দাওনি কোন 

    সারাটা দিন গতকাল !

     

    মনে আছে

    মহামারী যখন তুঙ্গে তখন চলে গেল 

    বকুলের বড় বৌদি', কাশেমের মেজ ভাই,

    পাড়ার কলেজ পড়ুয়া উঠতি ক্রিকেট তারকা।  

    মনে আছে

    আমার চুলে বিলি কেটে বলেছিলে তুমি,

    যাত্রায় বেঁচে যাই যদি, গুনে গুনে শোধ দেবো 

    বাকী আছে যত চুমু, যত বাকবাকুম!

    যদি এড়াতে পারি ভেন্টিলেটর এই দফায়

    বুক ভরে শুধুই নেবো তোমার রোমকূপ নিঃসৃত  

    এরোমা রাতভর বিরতিহীন !   

     

    মনে আছে,

    ক্রান্তিকালের ঘন কালো রাতে 

    ভীত সন্ত্রস্ত  জন প্রতিনিধি 

    আর নগরীর নগন্য নাগরিক  

    ভার্চুয়াল সমাবেশে জড়ো হয়েছিলো,  

    প্রেমিকার গায়ে গায়ে ঘেঁষে চেয়েছিলো 

    সাহস আর সান্তনা তাবৎ প্রেমিক প্রবর,

    কাছে টেনে হাত ধরে শিশুদের 

    পৃথিবীর সব বাবা বলেছিলো,

    যাত্রায় মিলে যদি যায় হিসেবের খাতাটা

    যদি দেখা হয় নতুন ভোরের সূর্য্যটা,  

    কড়ায় -গন্ডায় শোধ করে দেবো 

    বাকী রয়ে গেছে প্রতিশ্রুতি যত 

    ভালোবাসার বকেয়া ঋণ যত!   

     

    মনে আছে

    তুমি আরো বলেছিলে

    সবাই মিলে এক সাথে 

                                                       সমুদ্র স্নানে যাবে।  
                                                  

    6 comments:

    1. মিতালী দাস গুপ্তাJuly 23, 2021 at 5:51 PM

      মনে আছে।কবিতায় - সুনিকেত চৌধুরী সমসাময়িক বিষয় ভালোবাসার মাধ্যমে উপস্থাপন করেছেন। খুব উচ্চমানের কবিতা যা হৃদয়ে দাগ কাটে। খুব ভালো লাগলো। অনেক শুভ কামনা।

      ReplyDelete
    2. কবিতাকুঞ্জJuly 23, 2021 at 6:04 PM

      মনে আছে। কবিতায় - সুনিকেত চৌধুরী যে দুঃসময় পার করছি তা অংকিত করেছেন অনন্য ভাবে। খুবই আশা বাদী কবিতা এই করোনা কালে। "এ যাত্রায় মিলে যদি যায় হিসেবের খাতাটা যদি দেখা হয় নতুন ভোরের সূর্য্যটা,কড়ায় -গন্ডায় শোধ করে দেবো বাকী রয়ে গেছে প্রতিশ্রুতি যত ভালোবাসার বকেয়া ঋণ যত! " কথাগুলোর মাঝে জীবন বোধ গড়িয়ে আছে। যা অন্তরে গেঁথে থাকে। আর এখানেই কবি সুনিকেতের বিশেষত্য। অনেক অনেক শুভ কামনা কবি। ভালো থাকবেন।

      ReplyDelete
    3. কবি সুনিকেত চৌধুরী মনে আছে। কবিতা কবিতাটা পড়ে অন্য রকম এক ভালো লাগা জন্মালো। এ যেন গতানুগতিক ছন্দবদ্ধ কবিতা নয়। নয় কোন দুর্বোধ্য শব্দের চয়ন। এখানে আটপৌরে কথাগুলো অনন্যরূপে ধরা পড়েছে।

      ReplyDelete
    4. ড: অজিত গুহJuly 23, 2021 at 6:31 PM

      কবি সুনিকেত চৌধুরীর মনে আছে। কবিতা কি প্রেমের অভিমানের কবিতা না ক্রান্তিকালের ঘন কালো রাতে ভীত সন্ত্রস্ত উক্ষেপন। এখানে কবি যে সংমিশ্রণ ঘটিয়েছেন তা প্রশংসনীয়। এই পংক্তিগুলো এতো সুন্দর যে শেয়ার না করে পারলাম না মহামারী যখন তুঙ্গে তখন চলে গেল বকুলের বড় বৌদি', কাশেমের মেজ ভাই,ও পাড়ার কলেজ পড়ুয়া উঠতি ক্রিকেট তারকা আরো কতজনকে হারিয়েছি আমরা। তুবুও কবির আশা এই মহামারী শেষে গুনে গুনে শোধ দেবে বাকী আছে যত চুমু, যত বাকবাকুম যদি এড়াতে পারে ভেন্টিলেটর এই দফায় বুক ভরে শুধুই নেবো তোমার রোমকূপ নিঃসৃত এরোমা রাতভর বিরতিহীন। আর এখানেই এক কবির সার্থকতা। শুভ কামনা !

      ReplyDelete
    5. শফিক রায়হানJuly 23, 2021 at 6:35 PM

      কবি সুনিকেত চৌধুরীর মনে আছে। কবিতা আপন মহিমায় আপনি উদ্ভাসিত। অনন্য উপমা।কবির হৃদয় নিংড়ানো অনুভূতির কি গভীর প্রকাশ। খুব ভালো লাগলো কবি । ভালো থাকবেন।

      ReplyDelete
    6. মনীষা দাসJuly 23, 2021 at 7:04 PM

      কবি সুনিকেত চৌধুরীর মনে আছে। অনন্য নিখুঁত কবিতা।মনটা ভরিয়ে দিল। দারুন অনুভূতি কবিতা বার বার পড়তে ইচ্ছে করে। ! আলোকরেখাকে ও কবিকে অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা ।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ