আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও মুজিব আমার অহংকার! --------------------- সানজিদা রুমি ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    মুজিব আমার অহংকার! --------------------- সানজিদা রুমি

    মুজিব  আমার অহংকার!

    সানজিদা রুমি 

    আমি বাংলাদেশমুজিব আমার জন্মের আধার

    মানচিত্রে দিয়েছো ঠাঁই  ! মুজিব  আমার অহংকার!

    তুমি নও  কোন দিবসের -নও  বাঁধা বন্দি কালের যাত্রায়-

    আদি থেকে অন্ত নিত্যকালের চিরন্তন তুমি অক্ষয়তায়

    অদম্য অক্লান্ত সম্পূর্ণ তুমি  ! নও  পাত্র কৃপা-অনুকম্পার-

    তোমায়  বেঁধে রাখে সাধ্যি নেই  বিধাতার

    তুমি  মধুসূদনের মেঘনাদবধ অমর কাব্য !

    কবি নজরুলের" বিদ্রোহী " কবিতা ! শিখর হিমাদ্রির!

     "মহাবিশ্বের মহাকাশ ফাড়িউন্নত তব  শির-

    তুমি  মৃন্ময়, তুমি  চিন্ময়, অজর অমর অক্ষয়, তুমি  অব্যয়

    বিশ্বের  চির-দুর্জয়, তুমি মানব দানব দেবতার ভয় "

    চির-বিস্ময়! তুমি  অপরিজ্ঞাত, দুর্বোধ্য, রহস্যময় বিশ্ববিধাতার

    তব হৃদয়ে দীপ্ত নিগূঢ় অতিপ্রাকৃত রূপ নৈসর্গিক ভালোবাসার

     ঈশান-কোনের রুদ্র ঝঁঝা বৈশাখের দাহন খরা

     নদীর কুলু কুলু ধ্বনি অঝর শ্রাবনের ধারা   

    মানো  নাই প্রণালীবদ্ধ নিয়মনিষ্ঠ দলিত নিয়ম শৃঙ্খল

     শাসকেরে করি ভস্ম! নির্ভীক দুর্দম অটল

    বজ্র, বহ্ণি, স্ফুলিঙ্গ স্পর্ধিত তেজস্বী দাবানল



    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    7 comments:

    1. জিল্লুর রহমানMarch 17, 2022 at 4:23 PM

      সানজিদা রুমির "মুজিব আমার অহংকার!" উচ্চ মানের কবিতা। এখানে জাতির পিতাকে যে ভাবে উপস্থাপন তা প্রশংসনীয়। খুব ভালো লাগলো। জয় বঙ্গবন্ধু।

      ReplyDelete
    2. সালাউদ্দিন লাভলুMarch 17, 2022 at 4:28 PM

      সানজিদা রুমির "মুজিব আমার অহংকার!" কবিতাটা অসাধারণ।বাংলাদেশ মানেই শেখ মুজিব। তিনিই বাংলাদেশের জন্মের আধার। তাঁর জন্যই পৃথিবীর বুকে ঠাঁই পেয়েছে এক মানচিত্র। খুব ভালো লাগলো। সুস্বাগতম কবিকে।

      ReplyDelete
    3. রায়হান সোবহানMarch 17, 2022 at 6:15 PM

      সানজিদা রুমির "মুজিব আমার অহংকার!" কবিতাটা অসাধারণ সুন্দর । "তুমি নও কোন দিবসের -নও বাঁধা বন্দি কালের যাত্রায়-আদি থেকে অন্ত নিত্যকালের চিরন্তন তুমি অক্ষয়তায়। অদম্য অক্লান্ত সম্পূর্ণ তুমি ! নও পাত্র কৃপা অনুকম্পার-তোমায় বেঁধে রাখে সাধ্যি নেই বিধাতার।" এত সত্যি কথাগুলো প্রাণের ভেতরে যেয়ে লেগেছে। খুবই ভালো লাগলো পড়ে।

      ReplyDelete
    4. সমীর সাহাMay 12, 2022 at 10:01 PM

      কবে নতুন লেখা পাবো ? কতদিন আর পুরানো লেখা পড়ে কাটাবো । আলোকরেখা কি বন্ধ হয়ে গেল ? দয়া করে নতুন কিছু প্রকাশ করুন ।আলোক রেখা আমাদের খুব প্রিয় প্রকাশনা

      ReplyDelete
    5. বাহ। অসাধারণ সুন্দর

      ReplyDelete
    6. দারুন শক্তিশালি কবিতা | খুব ভালো লাগলো | কবিকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা |

      ReplyDelete
    7. খুব ভালো লাগার একটি কবিতা

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ