আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও বৃষ্টির তেলরং মেহরাব রহমান ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    বৃষ্টির তেলরং মেহরাব রহমান


    বৃষ্টির তেলরং  
         








                             মেহরাব রহমান


        
    আজ বৃষ্টি
    বৃষ্টি আক্রান্ত  
    আমি কবিতা আক্রান্ত  
    ভেতরে আগুন
    পুড়ে দাউ দাউ
    ভালোবাসার প্রিয় মানসী আমার
    আজ কোনও কথা নয়
    সব হবে ইঙ্গিতে
    আজ যাকিছু ভঙ্গিতে
    ইশারায় সংগীতে 




    রূপবান

    রূপকার আমি
    নীল জানালায়
    প্রগলভ বিদ্যুৎ জ্বেলে বসে থাকি
    ঘষা কাঁচ
    ওপারে তেলরং
    ঐযে জীবন ভাসছে নিয়তির ভেলায়     

    আজ বৃষ্টি

    বৃষ্টি আমাকে ভালো রাখে
    দৃষ্টির দুয়ার
    খিড়কির সবকটা পথ
    অলিন্দের বেবাক বন্ধ দেরাজ
    খুলে দেয়
    অঝর ভিজতে ভিজতে
    আমি হাঁটি উত্তরে, দক্ষিণে
    বৃষ্টি আমার
    শৈশবের গান
    কৈশোরের গান
    আনন্দ কীর্তন
    বৃষ্টি আমার ভগবান :
    " আয় বৃষ্টি ঝেপে ধান দেব মেপে
    আয় রিমঝিম বরষার গগনেরে
    কাঠফাটা রোদের আগুনে
    আয় বৃষ্টি ঝেপে আয়রে"

    বৃষ্টি আমাকে ভালো রাখে
    মনে জাগে
    নুয়ে পড়া বিকেলের গোধূলির রঙ
    এবং সুবর্ণ ধানক্ষেত
    চৈত্রের দারু অগ্নিবাণ
    হঠাৎ অবাক বৃষ্টি
    ছোট ছোট ঠোঁটের আলতো ¯পর্শ
    মুছে দেয় মাথার উপর
    কর্কট রোদ
    পাহাড় অব্দি জীবনের যন্ত্রনা বোধ
    বৃষ্টি আমাকে ভালো রাখে
    মনে জাগে
    টিনের চালে
    সৃষ্টি কাঁপানো বাউল বৃষ্টি
    চোখে ভাসে মায়ের প্রফুল­ হাত
    আমার জন্য ফোলা ফোলা লুচি ভাজে
    গরম
    সুগন্ধি ঘি'য়ে
    তখন আমাদের ঘরে
    নড়ে চড়ে বিপ­বী হাওয়া
    ভবিষৎ এর দিকে হেঁটে যাওয়া
    দুর্লভ, দুরন্ত

    উৎসব

    বৃষ্টি আমাকে ভালো রাখে
    উগ্র রদ্দুরে যখন
    জলীয়বাষ্প ক্রমে ক্রমে
    জমে জমে জলদ্বীপ হয়
    ঝুম বৃষ্টি নামে
    দ্বীপান্তরেরে
    সমুদ্রের
    দূর বাতিঘরে
    খুব ঝাপসা দূরের জগৎ
    ঝুম বৃষ্টি নামে অভ্যন্তরে 
    নিজগৃহে
    নিজপ্রান্তরে
    কে আবার রঙিন ওড়না ওড়ায়
    মরীচিকার রঙিন ঘুড়ি উড়ে
    কৈশরের দগ্ধ জানালায়?
    দূর বনে মাদল বাজে
    চুমু খায় প্রেমচুম্বন
    রিমঝিম রিমঝিম
    টুপটাপ টুপটাপ
    বৃষ্টির অপূর্ব আদর
    কুয়াশার আড়ষ্ঠতায়
    তাধিন তাধিন নাচে
    চৌচির আলোক নর্তকী
    উর্বশী অরণ্য অন্ধকার
    ব্যালকোনিতে
    পায়ে পায়ে
    আলতা পায়ে হেঁটে যায়
    মুগ্ধ তরুণী
    বৃষ্টির মাতোয়ারা দুপুরে
    ফুল সৌরভ ছুড়েঁ সে কোথায় পালায়

    বৃষ্টি আমাকে ভালো রাখে
    বৃষ্টি আমার
    শৈশবের গান
    কৈশোরের গান
    আনন্দ কীর্তন
    বৃষ্টি আমার ভগবান :
    "আয় বৃষ্টি ঝেপে ধান দেব মেপে
    আয় রিমঝিম বরষার গগনেরে
    কাঠফাটা রোদের আগুনে
    আয় বৃষ্টি ঝেপে আয়রে"

    বৃষ্টিতে আমার সূচনা নয়
    যবনিকা যেন হয় বৃষ্টিতে
    জানি আমি তখন বাজবে
    বৃষ্টির সিম্ফনি রিনিঝিনি
    বৃষ্টিরানীর পায়ে  ঘুঙুর
    বাজবে রূমঝুম রূমঝুম
    রাতভর টুপটাপ টুপটাপ
    চারদিকে অথৈ জল
    বৃষ্টির কোলাহল

    ১৯ জুন, ২০১৭
    টরন্টো

    7 comments:

    1. পাবলো --শাহবাগJuly 4, 2017 at 7:25 PM

      অনেক ভাল লাগলো "বৃষ্টির তেলরং"মেহরাব রহমানের কবিতা পরে দারুন ভাল লাগ্ল।কি দক্ষ ভাষার প্রয়োগ , নিদারুন শব্দ শৈলী ।মনের সব কটা অলিন্দ স্পন্দিত ও আলোড়িত করেছে।

      ReplyDelete
    2. অনেক ভাল মেহরাব রহমানের "বৃষ্টির তেলরং" কবিতা। দক্ষ ও নৈপুণ্য ভাষা।প্রগাঢ় ভাব ধারার লেখা। অপূর্ব শব্দ শৈলী ।স্পন্দিত ও আলোড়িত ছন্দবদ্ধ কবিতা। অনেক শুভেচ্ছা কবি আর আলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ মেহরাব রহমানের "বৃষ্টির তেলরং" কবিতা প্রকাশ করার জন্য।

      ReplyDelete
      Replies
      1. আলোকরেখাও বিশেষ কৃতজ্ঞ কবি মেহরাব রহমানের কবিতা প্রকাশ করতে পেরে ।সর্বপরি আলকরেখা ধন্য আপনাদের মত পাঠক পেয়ে ।ভাল থাকবেন! আর আলকরেখার সাথে থাকবেন!

        Delete
    3. মাহবুব সালেহীনJuly 4, 2017 at 8:16 PM

      মেহরাব রহমানের "বৃষ্টির তেলরং" কবিতা পড়ে অনেক ভাল। প্রতিটি শব্দ হৃদয় নিংড়ানো , দক্ষ ও নৈপুণ্য ভাষা।প্রগাঢ় প্রাণবন্ত ধারার লেখা। অনুরঁজন শব্দ চয়ন । অনেক শুভেচ্ছা কবি আর আলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    4. মহতী মন্ডলJuly 4, 2017 at 8:26 PM

      মেহরাব রহমানের "বৃষ্টির তেলরং" স্ফুরিত ও উদ্দীপিত ছন্দবদ্ধ কবিতা।অনেক শুভেচ্ছা কবি আর আলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ কবিতা প্রকাশ করার জন্য।

      ReplyDelete
    5. পড়ে অনেক ভাল মেহরাব রহমানের "বৃষ্টির তেলরং" কবিতা ।প্রতিটি চিত্ত আকর্ষিক ভাষা। দক্ষ ও নৈপুণ্য শব্দ ।প্রগাঢ় অনুরঁজন প্রাণবন্ত ধারার লেখা। অনেক শুভেচ্ছা কবি আর আলোকরেখাকে অনেক ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    6. সুপ্রিয়
      পাবলো,আহমেদ জাফর, সানজিদা রুমি ,
      মাহবুব সালেহীন, মহতী মন্ডল, মিতালি
      সেন আমার কবিতা আপনাদের ভালো লেগেছে
      আমি ধন্য, আমি আপ্লুত
      অন্তহীন কৃতজ্ঞতা

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ