আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও নিসর্গলম্পট----------------- জাহানারা বুলা। ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    নিসর্গলম্পট----------------- জাহানারা বুলা।



     নিসর্গলম্পট
    জাহানারা বুলা।

    আমি যত সহানুভূতির কথা বলি

    তুমি ততো কলহের কথা বলো

    আমি যত ভালোবাসার কথা বলি

    তুমি তার চেয়েও বেশী উলঙ্গ হয়ে পড়!

    তোমার উদোম শরীরে "ভালোবাসা"

    কোথায় লিখা আছে, আমি তো দেখি না!

    এই যে উচ্চাঙ্গ-নিম্নাঙ্গের প্রদর্শণ তুমি কর

    তার কোনখানে তুমি ভালোবাসা নাও বা দাও?

    যদি তোমার দেহ শৈথিল্য' দাবীই ভালোবাসা হয়

    তাহলে তুমি অপভালোবাসার কথা বলছো!

    নারীকূল এতটাও অসহায় নয় যে,

    তোমার লাঙ্গলের ফলায় বাঁধবে মানতের রঙিন সুতো

    বরং, আমি নারীশ্বর তোমার নাম রাখলাম -"নিসর্গলম্পট"

     
    http://www.alokrekha.com

    5 comments:

    1. মিতালী মুখার্জীJune 26, 2021 at 4:02 PM

      কবি জাহানারা বুলার নিসর্গলম্পট কবিতাটা পড়ে অন্যরকম লাগলো। জীবনের দিক গুলো ভিন্ন। আমরা একরকম কথা বলি অন্যেরা আরেক রকম। এখানে নারী পুরুষের যে ব্যবধান কবি তুলে ধরেছেন তা বাস্তব। আর আমরা নারীকূল এতটাও অসহায় নয় সেটাও প্রকাশ করেছেন বলিষ্ঠ ভাবে। খুব ভালো লাগলো। ভালো থাকবেন অনেক শুভেচ্ছা কবি।

      ReplyDelete
    2. মিতা রহমানJune 26, 2021 at 4:18 PM

      কবি জাহানারা বুলার নিসর্গলম্পট কবিতাটা পড়ে ভালো লাগলো। জীবনের বাস্তবতা অংকিত করেছেন এখানে। ভালোবাসার অপরপারে ভালোবাসার কথা না হয়ে শুধু শারীরিক কথা জীবনের মানে বদলে দেয়। দেহ শৈথিল্য'র দাবীই ভালোবাসা হয় তবে কি ভালোবাসা হয় ? হয় অপভালোবাসার কথা। শুভেচ্ছা কবিকে ,ভালো থাকবেন ভালো ভালো এরকম আরো কবিতা লিখবেন।

      ReplyDelete
    3. রেহানা সুলতানাJune 26, 2021 at 4:26 PM

      কবি জাহানারা বুলার নিসর্গলম্পট কবিতা পড়ে ভালো লাগলো। আমি কবি বা লেখক নই তাই কবিতা ব্যাখ্যা করার ভাষা আমার নেই। তবে উপলব্ধি করতে পারি। কবিতার পংতিতে পংতিতে বাস্তবতার ছোঁয়া। খুব ভালো লাগলো পড়তে।

      ReplyDelete
    4. বুলাপু যতবার পড়ি ততবার মুগ্ধ হই।

      ReplyDelete
    5. ঋতু মীরJuly 14, 2021 at 8:08 PM

      'নিসর্গলম্পট' কবিতার স্পষ্ট সাহসী উচ্চারণ, ভাব প্রকাশে অসাধারণ মেটাফোরের ব্যাবহার সত্যি প্রশংসনীয়। পুরুষের কাম আর কামনায় নারীর ভালবাসা যেন কেবল ভোগের অসার বস্তু। পাওয়াতেই যার পরিসমাপ্তি। প্রেমের মহিমা, নারী স্বত্বার পবিত্রতা সেখানে স্থান পায়না। 'তোমার উদোম শরীরে "ভালোবাসা" কোথায় লিখা আছে, আমি তো দেখি না'! নির্ভীক নিঃসঙ্কোচ এই উচ্চারণ-'নারীকূল এতটাও অসহায় নয় যে,তোমার লাঙ্গলের ফলায় বাঁধবে মানতের রঙিন সুতো'। জাহানারা বুলার সাহসী কলম উপহার দিক আরও কবিতা। শুভকামনা কবি!

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ