আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও বন্ধন ---- সানজিদা রুমি ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    বন্ধন ---- সানজিদা রুমি












    বন্ধন
    সানজিদা রুমি
    আমি এক ফলবান বৃক্ষ
    শাখা প্রশাখা আমার অঙ্গ প্রতঙ্গ
    সহস্র শ্রমে ফলে ফুলে ভরিয়েছি নিজেকে
    স্নেহ ভালোবাসায় ভরিয়ে রেখেছি  সারাক্ষন শাখা প্রশাখাকে।
    কত পাখি গায়- বাসা বাঁধে -ভালোবাসে সুখ সারি।
    ক্লান্ত পথিক দুপুর রোদে জিরোয় আমার ছায়ায়
    কতজন নিশ্চিন্তে আমার কোলে  নিদ্রা যায়।
     অথচ আমার  আজন্মের সাধ ছিলো--
    উড়ে বেড়াবো  প্রাণের উল্লাসে  সাদা মেঘের ভেলায়
     রাখালের বাঁশির সুরে সুরে চলে যাবো দুর খেয়ায়।
     আমি যে চলার শক্তি হারিয়েছি
     সংসার জমিনে  সুন্দর বাগান সাজিয়েছি।
    গভীর থেকে গভীরতর হচ্ছে আমার শেকড় --
    নতুন অপরাজিতা ফুটেছে আমার বাগান অঙ্গনে।
    কত রঙের প্রজাপতি এসে ভীড় করে
    কত রঙের ফুল সুগন্ধে ভরায়
    আপন রসে  উৎসরি।
     ভালো লাগে যখন পাখির কলতানে
    আন্দোলিত হয় আমার শাখা পল্লব।
    মুগ্ধ হয়ে চেয়ে থাকি-
    বুকের মধ্যে এক ধরণের মায়া জাগে -এক শক্ত বাঁধনে
    বাঁধা পড়েছি সংসার নামের এই ফলবান নন্দন  কাননে।

    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    7 comments:

    1. মেহতাব রহমানSeptember 22, 2019 at 3:57 PM

      কবির হৃদয় নিংড়ানো অনুভূতির কি গভীর প্রকাশ।গহীন জগতে নিজেকে বেঁধে রেখেছে সংসার বাঁধনে। নিজেকে তুলনা করেছেন নিজেকে এক ফলবান বৃক্ষের সাথে।শাখা প্রশাখা অঙ্গ প্রতঙ্গ ।সহস্র শ্রমে ফলে ফুলে ভরিয়েছি নিজেকে স্নেহ ভালোবাসায় ভরিয়ে রেখেছে সারাক্ষন শাখা প্রশাখাকে।জীবন চেতনার অভিব্যক্তি এই কবিতা। নিদারুন একটা কবিতা। অনেক শুভেচ্ছা কবি।

      ReplyDelete
    2. মিতা রহমানSeptember 22, 2019 at 4:42 PM

      কখনো শান্ত যদি আবার কখনো জোয়ার ভাটায় মোড়া এই সংসার। " আমি এক ফলবান বৃক্ষ" এতেই সানজিদা রুমির "বন্ধন" কবিতার মূল বক্তব্য। ফলবান বৃক্ষের শেকড় মজবুত হয়। দৃঢ় হয় সংসার জীবনে। অনেক শুভেচ্ছা কবি।

      ReplyDelete
    3. শিখা ব্যানাজীSeptember 22, 2019 at 5:08 PM

      সানজিদা রুমির "বন্ধন" কবিতার মূল বক্তব্য "কত পাখি গায়- বাসা বাঁধে -ভালোবাসে সুখ সারি।ক্লান্ত পথিক দুপুর রোদে জিরোয় আমার ছায়ায় কতজন নিশ্চিন্তে আমার কোলে নিদ্রা যায়।" মাতৃত্বের এক অভিভূত রূপ। অনেক শুভেচ্ছা কবি।

      ReplyDelete
    4. কৃষ্ণা সেনSeptember 22, 2019 at 5:52 PM

      দারুন অনবদ্য কবিতা বরাবরের মতই! অপূর্ব ভাব ! অনন্য উপমা! শব্দের মুক্তা মালা। অনেক অনেক ভালো লাগলো কবি।

      ReplyDelete
    5. রেজা মাহমুদSeptember 22, 2019 at 6:29 PM

      সানজিদা রুমি "বন্ধন" কবিতা পড়ে খুব ভালো লাগলো। সংসার বন্ধন অনেক বড়। কবি এখানে অনেক সুন্দর করে তার বর্ণনা করেছেন। শাখা প্রশাখা সন্তান সন্তুতি ফুল ফল তাদের সন্তান। কি অপরূপ রূপে বর্ণনা করেছেন। অনবদ্য কবিতা। অনেক অভিনন্দন কবি। রেজা মাহমুদ

      ReplyDelete
    6. মোহন সিরাজীSeptember 22, 2019 at 7:20 PM

      সানজিদা রুমি "বন্ধন" কবিতা পড়ে খুব ভালো লাগলো। সংসার বন্ধন অনেক বড়। কবি এখানে অনেক সুন্দর করে তার বর্ণনা করেছেন। "অথচ আমার আজন্মের সাধ ছিলো--উড়ে বেড়াবো প্রাণের উল্লাসে সাদা মেঘের ভেলায় ।রাখালের বাঁশির সুরে সুরে চলে যাবো দুর খেয়ায়।" এই কথাগুলোর মাঝে তার সাধ থাকে তার ইচ্ছে বিশেষ ভাবে বর্ণিত হয়েছে। দারুন কবিতা। অনেক অনেক ধন্যবাদ এমন একটি কবিতা উপহার দেবার জন্য।

      ReplyDelete
    7. মেধা বন্দোপাধ্যায়September 22, 2019 at 11:57 PM

      সানজিদা রুমির "বন্ধন" কবিতা খুব ভালো লাগলো।জীবনের বন্ধন সংসার বন্ধন। এখানে একবার যে পা রাখবে আঁটকে যাবে আজীবন। এর সৌন্দয্য এর আকর্ষণ ভালোবাসা এমনি যে এর বন্ধনে বুকের মধ্যে এক ধরণের মায়া জাগে -এক শক্ত বাঁধনে বাঁধা পড়ে সংসার নামের এই ফলবান নন্দন কাননে।অনবদ্য।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ