আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও তেইশ লক্ষ ! ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    তেইশ লক্ষ !


    তেইশ লক্ষ !
    চারদিকের, মানে সারাটা পৃথিবীর সব নেতা আর সাধারণ মানুষ একতার এক অবিস্মরণীয় উপমার সৃষ্টি করেছে একটি ভয়াবহ এবং দুর্দান্ত রকমের শক্তিধর ও তড়িৎ সংক্রমণক্ষম জীবাণুর আক্রমণ থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করার জন্যে। যদিও প্রথম দিকে শুধু নিজে বাঁচো জাতীয় একটা অসুস্থ প্রতিযোগীতা ছিল জরুরী প্রয়োজনে খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য-সামগ্রী কেনা-কাটায় , কিন্তু মানুষ একটু পরেই জেনে গিয়েছে যে এই ভয়াবহ বিপদের মুখোমুখী আমরা সবাই ! আমাদের এই উপলব্ধি এই বিপদকাল ছাড়িয়ে সর্বকালে দিগন্তে আলোকরেখার মত আমাদের সকলের আলোকবর্তিকা হয়ে পথ দেখাক ! তেইশ লক্ষ পাঠক ধন্য "আলোকরেখা"কে ঘিরে আমরা সবাই এই মন্ত্রে আবর্তিত হই, আমরা সবাই মিলে পরীর দেশে "চপল কুমার" এর দেখা সুন্দর সেই পৃথিবীটা আমাদের সন্তানদের জন্যে রেখে যেতে পারবো!


    সানজিদা রুমি কর্তৃক গ্রথিত http://www.alokrekha.com

    5 comments:

    1. মেহতাব রহমানMarch 20, 2020 at 4:17 PM

      আলোকরেখাকে সুস্বাগতম। আলোকরাখার চলার পথ সুন্দর সুগম হোক এই কামনা করি। এত সুন্দর লেখা যা মন কেড়ে নেয়।

      ReplyDelete
    2. আমরা যে সময়ে পার করছি তা অকল্পনীয়। এত ভয় সারাক্ষন আতংক। তবুও আলোকরেখা তেইশ লক্ষ পাঠকে পদার্পন করলো আলোকরেখাকে সুস্বাগতম।সকল লেখক কবিদের আন্তরিক শুভেচ্ছা। ভালো থাকবেন সবাই। সাবধানে থাকবেন।

      ReplyDelete
    3. আজ আলোকরেখা তেইশ লক্ষ পাঠক সংখ্যায় পদার্পন করলো। আগামী চলার পথ সুন্দর ও সুগম হোক আলোকরেখাকে অনেক অনেক অভিনন্দন আর সাধুবাদ।আমরা আলোকরেখা’র সাথে ছিলাম থাকব। প্রার্থনা করি এই পরাশক্তি জিততে পারবে না ।আমরা এই বিপদ থেকে শীঘ্রই উদ্ধার পাবো। অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই আলোকরেখার সংশ্লিষ্ট সকল লেখক কবি ও পরিচালকবৃন্দকে।

      ReplyDelete
    4. শফিক রায়হানMarch 20, 2020 at 5:06 PM

      আজ আলোকরেখা তেইশ লক্ষ সংখ্যায় পদার্পন করেছে ।এর সামনের চলার পথ আরো সুন্দর হোক। আলোকরেখাকে ও তার কবি লেখকদের জানাই অনেক অনেক অভিনন্দন আর শুভেচ্ছা।

      ReplyDelete
    5. মমতা শংকরMarch 20, 2020 at 8:31 PM

      আজ আলোকরেখা তেইশ লক্ষ সংখ্যায় পদার্পন করেছে । অল্প সময়ে আলোকরেখা এত জনপ্ৰিয়তা পাবার কারণ রুমির একাগ্রতা ও লেখার মান। আরো সুশোভিত নয়নাভিরাম ওয়েব সাইট। এতো সুন্দর সাজানো গোছালো। আসলেও সংগ্রহ শালা। আলোকরেখা আমাদের সব সময় প্রিয় ও থাকবে । আজ এই বিশ্বময় মহামারী পরাভূত হয়ে সুন্দরের জয় হোক ! সবার সুস্বাস্থ ও মঙ্গল করি অভিনন্দন!

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ