আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও সুনিকেত এর অনাহুত শব্দাবলী! ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    সুনিকেত এর অনাহুত শব্দাবলী!

    সুনিকেত এর অনাহুত শব্দাবলী!

    - সুনিকেত চৌধুরী। 

    মায়ের কাছে মাসীর কথা বলতে তুমি এসোনা, সুনিকেত,
    এসোনা সোনার খাঁচায় বন্দী হয়ে মুক্তির কথা বলতে,
    পারবে না হতে তুমি ক্যাথলিক পোপের চেয়েও বেশী !
    সত্যব্রত আর সব্যসাচী সমুদ্র ভ্রমণ শেষে বাড়ী ফিরে
    ধ্রুবতারার সাথে মিতালীর কথা যেদিন বলবে
    ঋজু হয়ে যখন মেলে ধরবে এক আকাশ রৌদ্র
    চৈত্র শেষে এক পশলা বৃষ্টি স্নাত মাটির সোঁদা গন্ধ
    তখন পথ দেখাবে তোমায়, পথহারা পথিক!
    বিদ্যার বহর কোনোদিনও পারেনি হারাতে
    শেখানোর সেই মাস্টার মশাইকে !
    নৌকোর মাঝির ফাঁকি জীবন আর তোমার বৈভব
    এক নিমেষে দাঁড়াবে সারিবদ্ধ শহীদ মিনারের পাদদেশে !
    শরতের যত সাদা মেঘ, সাদা যত কাঁশবন যোগ দেবে এসে
    বৈকালী ঝিলে দিগন্তের প্রান্ত থেকে উড়ে আসা বলাকার সাথে !
    তখন তুমি তোমার খসড়া খাতায় কবিতা কিংবা মহাকাব্য
    লিখার ভান করোনা ! কোরোনা জাহির তোমার বিদ্যার বহর !
    ধরা পড়ে যাবে অতি সহজেই, বেজে উঠবে ছুটির ঘন্টা
    আসবে বেরিয়ে যখন অনাহুত সব শব্দাবলী!

     http://www.alokrekha.com

    8 comments:

    1. লালন অনাদিJuly 11, 2017 at 10:34 PM

      কবি সুনিকেত চৌধুরীর লেখার মধ্যে এক ধরনের মাদকতা আছে যা পাঠককে আকৃষ্ট করে। শব্দ চয়ন ছন্দে কবিতাকে অনন্যতা দান করে । অনেক অভিনন্দন কবি ।

      ReplyDelete
    2. মেহবুবুর খানJuly 11, 2017 at 11:42 PM

      কবিতাটা পড়তে খুব ভাল ,কিন্তু অর্থ অনুধাবন করতে পারলাম না । কবি কি একটু বুঝিয়ে বলবেন ?

      ReplyDelete
    3. কবি সুনিকেত চৌধুরীর লেখা শুধু বার্তা জোরালো নয়। কথা ও শব্দের সমন্বয় অনব্দ্য। প্রতিটা পংতি বিশেষ অর্থ বহন করে। কবি তার কবিতা দাপটের সাথে লিখে যান বরাবই । খুব ভাল লাগে আমাদের পড়তে ও তার কবিতা নিয়ে আলোচনা শুধু নয় ভাঙতে গড়তে । তাই উনি আমাদের প্রিয় কবি ।

      ReplyDelete
    4. পাঠক সমাবেশ #পাঠক #আলোকরেখা #শাহবাগ #আজিজ মার্কেটJuly 12, 2017 at 1:33 PM

      সুনিকেত চৌধুরীর অনাহুত শব্দাবলী! অনন্য তুলনাহীন কবিতা। কবি জীবনের কথা আদান প্রদান যা অতীব সত্য। কবির দারুন শব্দ খেলা রচনা শৈলী, ভাব বোধ উপমা ও গভীর স্পর্শানুভূতি দিয়ে রচিত এই কবিতা ! অসাধারণ কবিতা। কবিকে অভিনন্দন।

      ReplyDelete
    5. সমিরন সেনJuly 12, 2017 at 1:40 PM

      সুনিকেত চৌধুরীর লেখা বেশ কদিন পরেই পেলাম।অনাহুত শব্দাবলী- অপ্রতিম কবিতা।জীবনের সাথে কথা বলা -বন্দি দিশায় মুক্তির কথা বা হই না কেন জীবনের প্রথম শিক্ষা কবিতায় বিশেষ বারতা প্রদান করেছে ।শব্দ ভাব উপমা ও গভীর অপূর্বস্পর্শানুভূতি নিয়েই কবিতা অসাধারণ । কবিকে শুভেচ্ছা!

      ReplyDelete
    6. জাহানারাJuly 12, 2017 at 1:52 PM

      সুনিকেত চৌধুরীর লেখা বেশ কদিন পরেই পেলাম।অনাহুত শব্দাবলী- দারুন অনবদ্য কবিতা। শব্দ শৈলী ,উপমা ও গভীর ভাবাপন্ন ও শক্তিশালী প্রগাড় বক্তব্য হৃদয় অনুভুতি স্পর্শ করা অসাধারণ কবিতা। কবিকে শুভেচ্ছা!

      ReplyDelete
    7. বেলাল বেগJuly 12, 2017 at 1:53 PM

      সুনিকেত চৌধুরীর-অনাহুত শব্দাবলী- বরাবরের মতই অসাধারণ কবিতা। " তুমি তোমার খসড়া খাতায় কবিতা কিংবা মহাকাব্যলিখার ভান করোনা ! কোরোনা জাহির তোমার বিদ্যার বহর !ধরা পড়ে যাবে অতি সহজেই, বেজে উঠবে ছুটির ঘন্টা
      আসবে বেরিয়ে যখন অনাহুত সব শব্দাবলী!" -এই চরণগুলো জীবনের অতীব সুচারু রূপে প্রতিবিম্বিত। একটা ভালো লাগার কবিতা। কবিকে শুভেচ্ছা ও আলোকরেখাকে ধন্যবাদ

      ReplyDelete
    8. খুব ভালো লাগলো কবিতাটি! শুভেচ্ছা কবিকে...

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ