আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও অর্থহীন -------- মুনা চৌধুরী ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    অর্থহীন -------- মুনা চৌধুরী

     অর্থহীন
    মুনা চৌধুরী

    কোষ্ঠিতে লেখা ছিল :
    আমার বাবার একাগ্রচিত্ত ধ্যান আমায় রক্ষা করবে না
    আমার উদ্বিগ্ন মায়ের আশীর্বাদ তোমায় ফিরিয়ে দেবে না+
    চোখে জল ভরে আসবে না -
    হিরোশিমা, ফিলিস্তিন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস পড়ে
    পৃথিবীর তাবৎ হত্যাযজ্ঞ, যুদ্ধ, পাপাচার আমায় আর ভাবাবে না
    আমি মোহাচ্ছন্ন হবো না,সদ্য ভূমিষ্ট শিশুর মোম আঙ্গুল ছুঁয়ে
    কখনো মুগ্ধ হব না আর-
    ল্যাভেন্ডার, সিনামন, জাপানি চেরীর মিষ্টি সৌরভে 
    যাযাবর হয়ে মাচুপিচ্চু, কায়রো, পম্পেই আবিষ্কারের শখ-
    কখনও জাগবে না আর l
    কোষ্ঠিতে লেখা ছিল যে :
    জীবন হবে এক শুকনো মরুভূমি; শুকনো, শূন্য, নিস্তব্ধ
    তুমি এসে জল ঢেলে কানায় কানায় ভরিয়ে দেবেনা আবার কখনও l

     http://www.alokrekha.com

    8 comments:

    1. মেহরান জাকিরDecember 26, 2019 at 5:02 PM

      কবি মুনা চৌধুরী'রঅর্থহীন কবিতা খুব ভালো লাগলো। এই বড় দিনে কবিকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা। আপনার জীবন অনেক সুন্দর হোক। ভালোবাসায় পূর্ন হোক জীবন। আর আপনি আরো লিখুন আপনার লেখা আমার অতন্ত্য ভালো লাগে। অনেক অনেক অনেক ভালোবাসা।

      ReplyDelete
    2. কবি মুনা চৌধুরীর অর্থহীন কবিতা দারুন অনবদ্য প্রেমের কবিতা। অথচ তার লেখায় উঠে এসেছে নানান কিছু ,বাবার একাগ্রচিত্ত ধ্যান আমার উদ্বিগ্ন মায়ের আশীর্বাদ পৃথিবীর তাবৎ হত্যাযজ্ঞ, যুদ্ধ, পাপাচার সদ্য ভূমিষ্ট শিশুর মোম আঙ্গুল। কোষ্ঠিতে লেখা ছিল যে :জীবন হবে এক শুকনো মরুভূমি; শুকনো, শূন্য, নিস্তব্ধ প্রেমিক এসে জল ঢেলে কানায় কানায় ভরিয়ে দেবেনা আবার কখনও। কি সুন্দর করে বর্ণনা করেছেন। কবিকে বড় দিনের শুভেচ্ছা।

      ReplyDelete
    3. মোহন রায়হানDecember 26, 2019 at 5:14 PM

      কবি মুনা চৌধুরীর অর্থহীন কবিতা অসাধারণ অনবদ্য প্রেমের কবিতা। কোষ্ঠিতে লেখা ছিল যে :জীবন হবে এক শুকনো মরুভূমি; শুকনো, শূন্য, নিস্তব্ধ প্রেমিক এসে জল ঢেলে কানায় কানায় ভরিয়ে দেবেনা আবার কখনও। কি সুন্দর করে বর্ণনা করেছেন। এই একটা কথা বলার জন্য কবি অনেক সুন্দর করে পুরো কবিতা লিখেছেন। খুবই ভালো লাগলো। শুভ কামনা কবি।

      ReplyDelete
    4. মোহন সিরাজীDecember 26, 2019 at 5:23 PM

      কবি মুনা চৌধুরীর অর্থহীন কবিতা অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবিতা। কবিতার কথাগুলো দারুন। পড়তে অনেক আনন্দ বোধ করি। তার প্রতি কবিতায় মন্তব্য করতে গিয়ে বলতে চাই বহুমুখী, বহু বিষয়ে পণ্ডিত। যদিও অর্থহীন কবিতা প্রেমের কবিতা। আমি বিশ্বাস করি তিনি আমার অন্তত প্রেমের কবি। এই বড়দিনে এটা আমাদের বড় পাওনা। কবি আপনাকে বড় দিনের শুভেচ্ছা।

      ReplyDelete
    5. শর্মিষ্ঠা বন্দোপাধ্যায়December 26, 2019 at 5:36 PM

      কবি মুনা চৌধুরীর অর্থহীন কবিতা তার লেখা শীর্ষস্থানীয় কবিতা। উপমা বর্ণনা অনবদ্য। বাবা মা সন্তানের জন্য কামনা করে তার ভালো হোক। কবির লেখায় হতাশা। সে জানে তার প্রেম আসবে না ফিরে আর। বাবার একাগ্রচিত্ত ধ্যান আমার উদ্বিগ্ন মায়ের আশীর্বাদ পৃথিবীর তাবৎ হত্যাযজ্ঞ, যুদ্ধ, পাপাচার সদ্য ভূমিষ্ট শিশুর মোম আঙ্গুল।তাকে ফিরিয়ে দেবে না। খুব ভালো লাগলো। শুভকামনা কবি।

      ReplyDelete
    6. কি দারুণ অর্থবহ একটি কবিতা আমাদের উপহার দিয়েছেন মুনা চৌধুরী ! কবিতার নাম "অর্থহীন, কিন্তু গভীর অর্থবহ! জন্মক্ষণে আপাতঃ নির্ধারিত ভবিতব্যে যাপিত আমাদের এই জীবনের "না পাওয়াগুলো" আমাদেরকে আয়নার মত একটা কিছুর সামনে এনে দাঁড় করিয়ে দেয় যেখানে দাঁড়িয়ে আম্ররা আচ্ছন্ন হই, বিলাসী হই এই ভাবনায় যে এ জনমে আর হবে না আশা পূরণ, হবেনা তীর্থ যাত্রা; স্বপ্নের মানসপ্রতিম সম জীবনের চাওয়া-পাওয়াগুলো একবার হলেও আর পূরণ হবেনা! 

      কবিতায় কবির শব্দ চয়ন ও সেই শব্দাবলী দিয়ে ছবি আঁকতে পারার সাবলীল দক্ষতার ব্যবহার আর সারা কবিতা জুড়ে ক্যানভাসের যে ব্যাপ্তি নেপথ্যে সংগীতে বেহাগের সুর মিশ্রিত করে আমাদের মানস চক্ষের সামনে প্রতিভাত করেছেন তা ভীষনভাবে উপভোগ করেছি! অধীর অপেক্ষায় থাকবো তাঁর পরবর্তী সৃষ্টির রস আস্বাদনের !

      ReplyDelete
    7. বড়দিনের সবচাইতে সুন্দর উপহার পেলাম আমার পাঠকদের কাছ থেকে. বরাবরের মতোই বলবো আপনাদের ভালোলাগাই আমার চালিকা শক্তি. আমার পাঠকদের ভালোলাগাই আমার সর্বোচ্চ প্রাপ্তি. পৃথিবীর যে যে প্রান্তরে আলোকরেখার বাংলা ভাষাভাষী পাঠকরা রয়েছেন সবার জন্য হোক নতুন বছর আনন্দময় এবং মঙ্গলময়- এই প্রার্থনায় ..

      ReplyDelete
    8. ঋতু মীরDecember 29, 2019 at 5:00 PM

      মুনা চৌধুরীর 'অর্থহীন" কবিতা এক নিগুঢ় অর্থবোধক মাত্রায় মনকে আচ্ছন্ন করেছে। কবিতার ভাব কবির অন্তর্দৃষ্টি আর প্রকাশভঙ্গীর পরিপক্কতায় সমৃদ্ধ। না পাওয়ার বেদনায় আক্ষেপ নেই আছে দীর্ঘশ্বাস মেশা সবগতোক্তি- 'কোষ্ঠীতে লেখা আছে যে!' দারুন এই অভিব্যাক্তি ! পরিসরে ছোট্ট এই কবিতার মন ছোঁয়া ব্যাপ্তি অনেক বেশি। শুভকামনা নিরন্তর!!কবির কলম গতিময় থাকুক... এভাবেই ! ধন্যবাদ আলোকরেখা!

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ