আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও -আপনাকে এই লুকিয়ে-রাখা ধুলার ঢাকা ধুইয়ে দাও-যে জন আমার মাঝে জড়িয়ে আছে ঘুমের জালে..আজ এই সকালে ধীরে ধীরে তার কপালে..এই অরুণ আলোর সোনার-কাঠি ছুঁইয়ে দাও..আমার পরান-বীণায় ঘুমিয়ে আছে অমৃতগান-তার নাইকো বাণী নাইকো ছন্দ নাইকো তান..তারে আনন্দের এই জাগরণী ছুঁইয়ে দাও সেই মেয়েটি ------------------- মেহরাব রহমান ~ alokrekha আলোক রেখা
1) অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না, কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায় -এডওয়ার্ড হল । 2) অবসর জীবন এবং অলসতাময় জীবন দুটো পৃথক জিনিস – বেনজামিন ফ্রাঙ্কলিন । 3) অভাব অভিযোগ এমন একটি সমস্যা যা অন্যের কাছে না বলাই ভালো – পিথাগোরাস । 4) আমাকে একটি শিক্ষিত মা দাও , আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব- নেপোলিয়ন বোনাপার্ট । 5) আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না – শিলার । 6) উপার্জনের চেয়ে বিতরণের মাঝেই বেশী সুখ নিহিত – ষ্টিনা। 7) একজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যাক্তি কে জাগ্রত করতে পারে না- শেখ সাদী । 8) একজন দরিদ্র লোক যত বেশী নিশ্চিত , একজন রাজা তত বেশী উদ্বিগ্ন – জন মেরিটন। 9) একজন মহান ব্যাক্তির মতত্ব বোঝা যায় ছোট ব্যাক্তিদের সাথে তার ব্যবহার দেখে – কার্লাইন । 10) একজন মহিলা সুন্দর হওয়ার চেয়ে চরিত্রবান হওয়া বেশী প্রয়োজন – লং ফেলো। 11) কাজকে ভালবাসলে কাজের মধ্যে আনন্দ পাওয়া যায় – আলফ্রেড মার্শা
  • Pages

    লেখনীর সূত্রপাত শুরু এখান থেকে

    সেই মেয়েটি ------------------- মেহরাব রহমান

     সেই মেয়েটি
    মেহরাব রহমান
                  
                    মেঘ অফুরান
    চোখেতে তুফান
    জল চলমান
    কল্ কল্ ধায়
    কেঁপে কেঁপে যায়।
    অধরা প্রিয়া বাজে রিন্ রিন্
    সুরেলা রঙিন।
    সেই মেয়েটির
    দুচোখ গভীর।
    মাটির গহনা
    সুখের মোহনা।
    কপালে তিলক
    ভুলালো ত্রিলোক।
    হাসিতে তার পাড় ভাঙা ঢেউ
    তার কত দাম জানেনাতো কেউ
    হিমালয় থেকে নদী ধেয়ে আসে
    জানিনাতো সে কারে ভালোবাসে?
    জোছনা সে রাতে
    ঝর্ণা বহাতে
    মিঞা তানসেন রাগিনী শোনায়
    তার তনুমন স্বপ্ন বোনায়। 
    হীরক খচিত আঁচল তাহার
    বাতাসে ওড়ায় টিলা ও পাহাড়’
    বাংলাদেশের শ্যামলিমা মেয়ে
    নদী কল্ কল্ ছুটে চলে ধেয়ে।
    বুকেতে তাহার উর্বর জমি
    আগুন অধরে কোটিবার চুমি;

    সেই মেয়ে আর
    সব একাকার।
    সেই মেয়েটির
    দুচোখ গভীর
    চোখেতে তাহার বর্ণিল মানচিত্র
    এদেশ এখনো স্বর্ণ মাখানো চিত্র।



     http://www.alokrekha.com



    6 comments:

    1. মিতা রহমানJanuary 24, 2020 at 4:44 PM

      সেই মেয়েটি কবিতায় মেহরাব রহমান ছড়ার আদলে যে কবিতা লিখেছে তা খুবই সুন্দর। সেই মেয়েটির বর্ণনা অনবদ্য। বিশেষ ভালোবাসা কবিকে।

      ReplyDelete
    2. শর্মিষ্ঠাJanuary 24, 2020 at 4:53 PM

      মেহরাব রহমান সেই মেয়েটি কবিতায় মেয়েটির নিরুপম রূপ অংকিত করেছেন। তার চোখের দুচোখ গভীর,কপালে তিলক,হাসিতে তার পাড় ভাঙা ঢেউ,বাংলাদেশের শ্যামলিমা মেয়ের রূপ অন্তরে গ্রথিত করেছেন ,খুব ভালো লাগলো। অন্য ধাঁচের কবিতা। শুভ কামনা।

      ReplyDelete
    3. ড: অনিত রায়January 24, 2020 at 6:55 PM

      মেহরাব রহমান সেই মেয়েটি কবিতায় মেয়েটির রূপ বর্ণিত করেছেন তা অতুলনীয়, অনুপম, অপ্রতিম, অপরূপ।বিশেষ করে
      সেই মেয়ে আর
      সব একাকার।
      সেই মেয়েটির
      দুচোখ গভীর
      চোখেতে তাহার বর্ণিল মানচিত্র
      এদেশ এখনো স্বর্ণ মাখানো চিত্র। সেই মেয়েটির আসল জিয়ন কাঠি। খুব ভালো লাগলো এমন ছন্দময় কবিতা পড়ে। ভালো থাকবেন কবি। শুভেচ্ছা।

      ReplyDelete
    4. শফিক রায়হানJanuary 24, 2020 at 7:14 PM

      মেহরাব রহমান সেই মেয়েটি কবিতায় একটি মেয়ের সম্পূর্ণ রূপ বর্ণনা করেছেন অপরূপ ভাবে। চোখেতে তুফান তার মেঘ অফুরান সেই মেয়েটির
      দুচোখ গভীর সুরেলা রঙিন। ত্রিলোক ভুলানো কপালে তিলক মাটির গহনা পরেই সে সুখী। অনন্য কবিতা। খুবই ভালো লাগলো।

      ReplyDelete
    5. মোহন রায়হানJanuary 24, 2020 at 7:44 PM

      কবি মেহরাব রহমানের প্রতিটি কবিতা আমরা ভিন্ন মাত্রায় পাই। বিষয়বস্তুও সর্বদা আলাদা আলাদা। আমি কবির অনেক বড় ভক্ত। আলোকরেখায় প্রকাশিত এমন কোন কবিতা নাই আমার পড়া হয় নাই। প্রতিটি কবিতা যেন মুক্ত মালা। আমার প্রিয় কবি অনেক ভালোবাসা নিয়েন। ভালো থাকুন এই কামনা করি। শুভ কামনা।

      ReplyDelete
    6. মোহন সিরাজীJanuary 24, 2020 at 7:54 PM

      এমন ছন্দবদ্ধ কবিতা এই প্রথম আলোকরেখায় প্রকাশিত হয় নাই। মেহরাব রহমান সেই মেয়েটি কবিতায় একটি মেয়ের সম্পূর্ণ রূপ অপরূপ ভাবে বর্ণনা করেছেন। মেয়েটির বর্ণনা যেভাবে বর্ণনা করেছেন তাতে মনে হয় সে আমার চির চেনা। খুব ভালো লাগল। শুভকামনা কবি।

      ReplyDelete

    অনেক অনেক ধন্যবাদ